মশা নিধনে সমন্বিত অভিযান ৮ মার্চ থেকে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৫২ পিএম, ০২ মার্চ ২০২১

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) এলাকায় কিউলেক্স মশা নিধনে আগামী ৮ থেকে ১৬ মার্চ পর্যন্ত সমন্বিত অভিযান (ক্র্যাশ প্রোগ্রাম) শুরু হবে। এই ক্র্যাশ প্রোগ্রামে ডিএনসিসির ১০টি অঞ্চলের সব মশকনিধন কর্মী এবং যান-যন্ত্রপাতি একটি অঞ্চলে নিয়ে একদিন করে মশকনিধন অভিযান পরিচালনা করা হবে।

মঙ্গলবার (২ মার্চ) রাজধানীর রাওয়া ক্লাবে ডিএনসিসির পঞ্চম করপোরেশন সভায় এই পরিকল্পনার কথা জানান ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। সভায় ডিএনসিসির সব কাউন্সিলর ও ঊর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মেয়র বলেন, ‘কিউলেক্স মশা নিধনে আমরা ‘ইনটেন্সিভলি’ কাজ করবো। মশকনিধনের পাশাপাশি পরিচ্ছন্নতা অভিযানও পরিচালিত হবে। সমগ্র ঢাকা উত্তরকে আমরা সম্পূর্ণ ‘সুইপিং’ করতে চাই।’

jagonews24

কাউন্সিলরদের উদ্দেশ্যে আতিক বলেন, ‘মশকনিধন অভিযান চলাকালে আমি মাঠে থাকবো। আপনাদের প্রত্যেকেও মাঠে থাকতে হবে। আমাদের প্রত্যেককে সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে। ডিএনসিসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ মনিটরিংয়ের কাজ করবেন। জিআইএস ম্যাপিং করা হচ্ছে। অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে এই অভিযান পরিচালিত হবে।’

তিনি বলেন, ‘প্রতিদিন সকাল ৬টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত লার্ভিসাইডিং এবং বিকেল ৪টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এডাল্টিসাইডিং করা হবে। পাশাপাশি পরিচ্ছন্নতা অভিযানও চলবে। ডিএনসিসির স্বাস্থ্য বিভাগ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ ও প্রকৌশল বিভাগের সমন্বয়ে এই অভিযান পরিচালিত হবে।’

এর মধ্যে ৮ মার্চ মিরপুর-২ অঞ্চল (অঞ্চল-২), ৯ মার্চ মিরপুর-১০ অঞ্চল (অঞ্চল-৪), ১০ মার্চ কারওয়ান বাজার অঞ্চল (অঞ্চল-৫), ১১ মার্চ মহাখালী অঞ্চল (অঞ্চল-৩), ১৩ মার্চ ভাটারা অঞ্চল (অঞ্চল ৯) ও সাতারকুল অঞ্চল (অঞ্চল-১০), ১৪ মার্চ উত্তরা অঞ্চল (অঞ্চল-১), ১৫ মার্চ দক্ষিণখান অঞ্চল (অঞ্চল-৭) ও উত্তর খান অঞ্চল (অঞ্চল-৮) এবং ১৬ মার্চ হরিরামপুর অঞ্চলে (অঞ্চল-৬) এই অভিযান পরিচালিত হবে।

এমএমএ/ইএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]