শহীদ মিনারে এইচ টি ইমামকে শেষ শ্রদ্ধা

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের মরদেহে রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। তাদের নিবেদন শেষে সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) দুপুর সাড়ে ১২টায় সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য তার মরদেহ শহীদ মিনারে নিয়ে আসা হয়। সেখানে জাতীয় পতাকায় মোড়ানো কফিনে প্রথমে রাষ্ট্রপতির পক্ষে তার সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এস এম সালাহ উদ্দিন ইসলাম (বীর প্রতীক) ও প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে তার সামরিক সচিব মেজর জেনারেল নকিব আহমদ চৌধুরী পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। তার মরদেহ সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত শহীদ মিনারে রাখা হবে।

jagonews24

এরপর আওয়ামী লীগের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য মুকুল বোস, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবীর নানক, আব্দুর রহমান প্রমুখ। এরপর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পক্ষে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন শেষে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, এইচ টি ইমামের মতো কর্মপাগল ও কর্মনিষ্ঠ মানুষ সমাজে বিরল। তিনি দেশের জন্য অনেক কাজ করে গেছেন। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগ পর্যন্ত তিনি দেশের জন্য কাজ করে গেছেন। চাকরি থেকে অবসর নিয়েছিলেন, কিন্তু কাজ থেকে কখনও অবসর নেননি। এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে যে শূন্যস্থান তৈরি হলো তা কখনও পূরণ হওয়ার নয়।

jagonews24

তিনি আরও বলেন, স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পাশে ছিলেন এইচ টি ইমাম। বঙ্গবন্ধু হত্যার পর তার কন্যা শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেছিলেন। তিনি আমাদের দলের প্রচার সেলের প্রধান ছিলেন।

এইচ টি ইমামের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, কৃষকলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিক লীগসহ সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও ব্যক্তি পর্যায়ের মানুষ। এছাড়া বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে এইচ টি ইমামের কফিনে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়। 

এমআরআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]