মেয়ের চিকিৎসার জন্য ঢাকা এসে ফিরলেন লাশ হয়ে

ঢামেক প্রতিবেদক
ঢামেক প্রতিবেদক ঢামেক প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩৮ পিএম, ০৭ মার্চ ২০২১
নিহতের স্বজনরা

রাজধানীর গুলিস্তানে গোলাপ শাহ্ মাজারের সামনে রাস্তা পারাপারের সময় দুই বাসের চাপায় মোছা. পারভীন বেগম (৪০) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন।

রোববার (৭ মার্চ) দুপুর ১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহতাবস্থায় রেড ক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবীরা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুপুর পৌনে ২টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

উদ্ধারকারী রেড ক্রিসেন্ট স্বেচ্ছাসেবক হুমায়ুন কবীর জানান, আনুমানিক দুপুর ১টার দিকে গোলাপ শাহ মাজারের সামনে রাস্তা পারাপারের সময় এন মল্লিক ও আরাম পরিবহনের দুই বাসের মাঝে চাপা পড়ে ওই নারী রাস্তায় গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের স্বামী আব্দুল বাসেত জানান, আমার মেয়ে সুমাইয়া অসুস্থ। সে তার মায়ের সঙ্গে চিকিৎসার জন্য আজ সকাল ৭টার দিকে মুন্সিগঞ্জ থেকে ঢাকায় আসে। শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে মেয়ের চিকিৎসা করিয়ে বাড়িতে ফেরার জন্য মিরপুর থেকে বাসে উঠে। গুলিস্তানে গিয়ে গাড়ি থেকে নেমে মেয়ে আগে রাস্তা পার হয়ে যায়। পরে সে রাস্তা পারাপারের সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

তিনি আরও জানান, তাদের গ্রামের বাড়ি মুন্সিগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান থানার রাজদিয়া গ্রামে। নিহত দুই মেয়ের জননী ছিলেন।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে অবগত করা হয়েছে।

এআরএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]