কৃষিপণ্য রফতানিতে সব বাধা চিহ্নিত করে সমাধান : কৃষিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৪৬ পিএম, ১১ এপ্রিল ২০২১

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে হলে উৎপাদিত কৃষিপণ্যের আন্তর্জাতিক মান বজায় রাখতে হবে। কৃষিপণ্য রফতানিকে আরও তরান্বিত ও ফলপ্রসূ করতে এই খাতে যেসব বাধা ও সমস্যা রয়েছে, সেগুলো চিহ্নিত করে সমাধান করা হবে।

রোববার (১১ এপ্রিল) সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষ থেকে অনলাইনে ‘শাকসবজি ও ফল রফতানিকারকদের সঙ্গে মতবিনিময়’ সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, কৃষিতে সরকারের এখন লক্ষ্য হলো- কৃষির প্রক্রিয়াজাতকরণ ও বাণিজ্যিকীকরণ করে কৃষিকে লাভজনক করা। এজন্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প স্থাপন ও উদ্যোক্তাদের কীভাবে আরও সহায়তা দেয়া যায় সেটাও আমরা চিন্তা করছি। উৎপাদিত কৃষিপণ্য দেশীয় বাজারের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বাজারে কীভাবে যেতে পারে তার ওপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। সেজন্য যারা রফতানির সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত এবং মানোন্নয়নে কাজ করছে তাদেরকে সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদান করা হবে।

কৃষিমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশে কৃষির গুরুত্ব অনেক বেশি। কৃষি মানুষের খাদ্য-নিরাপত্তা নিশ্চিত করে। একই সঙ্গে বিভিন্ন শিল্পের কাঁচামালেরও যোগান দিয়ে থাকে। এ কাঁচামাল যোগান দিয়ে আমরা যে প্রক্রিয়াজাত পণ্য পাচ্ছি সেটা বিদেশে রফতানিরও অনেক সম্ভাবনা রয়েছে। এখনও আমাদের রফতানির বেশিরভাগই তৈরি পোশাকের মধ্যে সীমিত। প্রায় শতকরা ৮০-৮৪ ভাগ আসে তৈরি পোশাক খাত থেকে। তার সঙ্গে সঙ্গে কৃষি একটি সম্ভাবনাময় সেক্টর।

তিনি বলেন, আমরা যদি প্রক্রিয়াজাতকরণ করতে পারি এবং নিরাপদ সবজি ও ফলের নিশ্চয়তা দিতে পারি তাহলে আন্তর্জাতিক বাজারেও কৃষিপণ্য রফতানি করতে পারব। পাশাপাশি মান নিয়ন্ত্রণের জন্য অ্যাক্রিডিটেড ল্যাব দ্রুত চালু করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।

সভায় বক্তারা কৃষিপণ্য রফতানিতে করণীয় বিষয়ে মতামত তুলে ধরেন। সভায় কৃষিমন্ত্রী বিভিন্ন স্টেকহোল্ডারদের মতামত ও অভিজ্ঞতার বিষয়ে শুনেন। তাদের সুপারিশমালা বিবেচনায় নিয়ে মন্ত্রণালয় কীভাবে সহযোগিতা করতে পারে এজন্য সংস্থাগুলোর মধ্যে দ্রুত আরেকটি সভা করার জন্য মন্ত্রী পরামর্শ দেন।

সভায় সভাপতিত্ব করেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মেসবাহুল ইসলাম। কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (পিপিসি) মো. রুহুল আমিন তালুকদারের সঞ্চালনায় এতে অন্যান্যের মধ্যে কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সম্প্রসারণ) মো. হাসানুজ্জামান কল্লোল, অতিরিক্ত সচিব (গবেষণা) কমলারঞ্জন দাশ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. আসাদুল্লাহ, বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশনের চেয়ারম্যান ড. অমিতাভ সরকার, কৃষি বিপণন অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. ইউসুফ, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার, উদ্ভিদ সঙ্গনিরোধ উইংয়ের পরিচালক মোহম্মদ আনোয়ার হোসেনসহ প্রাণ-আরএফএল, এসিআই এবং সবজি ও ফল রফতানিকারক অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা বক্তব্য রাখেন।

এনএইচ/এআরএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]