রমজানে বিনামূল্যে কোরআনিক ভাষা শেখাবে ‘সাফিরুল কোরআন’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:২১ পিএম, ১২ এপ্রিল ২০২১

পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে বাংলা ভাষাভাষী ২০ হাজারেরও বেশি মুসলমান নারী-পুরুষকে বিনামূল্যে কোরআনিক ভাষা শেখানোর উদ্যোগ নিয়েছে দ্বীনি শিক্ষার প্রতিষ্ঠান ‘সাফিরুল কোরআন’। প্রতিষ্ঠানটির অ্যাডমিন প্রধান মুহাম্মাদ রশিদ আল মাজিদ খান সিদ্দিকী মামুন সম্প্রতি অনলাইন প্ল্যাটফর্মে আনুষ্ঠানিক এই উদ্যোগের বিষয়টি জানান।

‘সাফিরুল কোরআন’ হলো- সহজ উপায়ে কোরআনিক ভাষা শেখার এমন একটি বিস্তৃত কোর্স, যার মাধ্যমে পবিত্র আল কোরআনের আয়াত পড়ে বা শুনে অতি সহজে প্রতিটি শব্দ বা বাক্যের অর্থ বোঝা যায়।

কোরআনিক ভাষা শেখার এই কার্যকরী কোর্সটি সাধারণত তিনটি স্তরে শেখানো হয়ে থাকে। যার প্রাথমিক স্তরের কোর্সটি সম্পন্ন করার পর শিক্ষার্থীরা কোরআনিক ভাষার প্রায় ৭০-৮০ শতাংশ শব্দ বা আয়াতের ভাবার্থ বুঝতে সক্ষম হবেন। দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্তরের কোর্স শেষ করার মাধ্যমে তারা কোরআন-হাদিসের পবিত্র গ্রন্থগুলো পড়ে সঠিক অর্থ অনুধাবনের পাশাপাশি এগুলোর ওপর অধিকতর গবেষণা ও জ্ঞানার্জনের সক্ষমতা অর্জন করেন।

সাফিরুল কোরআনের লেখক ও গবেষক, লন্ডনপ্রবাসী বাংলাদেশি ওস্তাদ ড. আবুল কালাম আজাদ। তিনি নব্বইয়ের দশকে উচ্চশিক্ষার উদ্দেশ্যে মদিনায় পাড়ি দেন। এরপর থেকে প্রবাসেই তার জীবনের অধিকাংশ সময় কেটেছে। মদিনা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জনের পর কয়েক দশক তিনি পবিত্র কোরআনের ওপর বিস্তারিত পড়াশোনা ও গবেষণার মাধ্যমে সহজে আল-কোরআন পড়ে বোঝার আধুনিক পদ্ধতি ‘সাফিরুল কোরআন’উদ্ভাবন করেন।

বিগত কয়েক বছর ধরেই এই অভিনব পদ্ধতি প্রয়োগ করে তিনি নিজেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বাংলা ও ইংরেজি ভাষা-ভাষী মুসলিম জনগোষ্ঠীর মাঝে নির্দিষ্ট ফি’র বিনিময়ে বিস্তারিত কোর্সটি পরিচালনা করে আসছেন।

এবারই প্রথম আসন্ন রমজান উপলক্ষে সম্পূর্ণ ফ্রি’তে প্রাথমিক কোর্স- ‘মিনি সাফিরুল কোরআন’ পরিচালনার ঘোষণা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

আইএইচআর/এআরএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]