নিউমার্কেটে স্বাস্থ্যবিধি সচেতনতায় অভিযান

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১২:৫৪ পিএম, ০৪ মে ২০২১

রাজধানীর নিউমার্কেটে স্বাস্থ্যবিধি সচেতনতায় অভিযান চালাচ্ছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সঞ্জীব দাসের নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালিত হচ্ছে।

অভিযানের অংশ হিসেবে ক্রেতা-বিক্রেতাদের সচেতন করতে মাইকিং করে মাস্ক পরার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। সেইসঙ্গে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতেও বলা হচ্ছে।

jagonews24

এর আগে কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধে গত ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে আটদিনের কঠোর লকডাউন শুরু হয়। লকডাউনের মধ্যে দোকান-শপিংমল বন্ধ রাখাসহ ১৩টি নির্দেশনা দেয়া হয় সরকারের পক্ষ থেকে।

তবে দোকান মালিকদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ১১ দিন বন্ধ থাকার পর গত ২৪ এপ্রিল থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান ও শপিংমল খুল দিয়েছে সরকার।

jagonews24

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, করোনাভাইরাসজনিত রোগের (কোভিড-১৯) বিস্তার রোধে শর্তসাপেক্ষে সার্বিক কার্যাবলি/চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের আগের নির্দেশনার ধারাবাহিকতায় ব্যাপক সংখ্যক মানুষের জীবন-জীবিকার বিষয় বিবেচনা করে নতুন এই নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট বাজার/সংস্থার ব্যবস্থাপনা কমিটি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

jagonews24

মার্কেট খুলে দেয়ার পর ক্রেতা কম আসলেও কোথাও কোথাও বিক্রেতারা মাস্ক পরছেন না এমন অভিযোগ উঠেছে।

এ পরিস্থিতিতে সোমবার (৩ মে) মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানান, ক্রেতা ও বিক্রেতারা মাস্ক না পরলে মার্কেট বন্ধ করে দেয়া হবে। পুলিশ, সিটি করপোরেশন ও স্থানীয় প্রশাসন এই ব্যবস্থা নেবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘গতকাল (রোববার) মাননীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সভাপতিত্বে একটা মিটিং হয়েছে। সেখানে কিছু সুপারিশ করা হয়। আজকে সেই বিষয়ে ক্যাবিনেট সিদ্ধান্ত দিয়েছে। আজ থেকে পুলিশ, সিটি করপোরেশন, ম্যাজিস্ট্রেট ও অ্যাডমিনিস্ট্রেশন তারা দেশের প্রত্যেকটি মার্কেট সুপারভাইজ করবে। কোনো মার্কেটে এত লোক হয়তো কন্ট্রোল করা যাবে না, কিন্তু মাস্ক ছাড়া যদি বেশি লোকজন ঘোরাফেরা করে প্রয়োজনে আমরা সেসব মার্কেট বন্ধ করে দেব। ক্লিয়ারলি এটা বলে দেয়া হয়েছে।’

jagonews24

তিনি বলেন, ‘দোকান মালিক সমিতির সভাপতিরা আমাদের সহযোগিতা করবেন বলে আশ্বস্ত করেছেন। ওনারা নিজেরাও এটা সুপারভাইজ করবেন।’

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম আরও বলেন, ‘বাইরে প্রচার করতে হচ্ছে যে, কোনো অবস্থায় যদি স্বাস্থ্যবিধির ব্যাপক ভায়োলেশন হয় তাহলে প্রয়োজনে আমরা ওই মার্কেট বন্ধ করে দেব।’

এমইউ/এমএএস/এমআরআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]