অসহায় মানুষের সঙ্গে ঈদ আনন্দ ভাগ করে নিন : ন্যাপ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৫০ পিএম, ১১ মে ২০২১

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (বাংলাদেশ ন্যাপ) চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

তারা বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বের অন্য দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের মানুষও ভয়াবহ বিপর্যয়ের মধ্যে রয়েছেন। এই অবস্থায় অসহায় ও দুস্থ মানুষের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগ করে নেয়া উচিত।

মঙ্গলবার (১১ মে) গণমাধ্যমে পাঠানো এক শুভেচ্ছা বার্তায় তারা এসব কথা বলেন।

ন্যাপের এই প্রধান দুই নেতা বলেন, মাসব্যাপী রমজানের আত্মশুদ্ধির মহান দীক্ষার মধ্য দিয়ে আসে ঈদুল ফিতরের আনন্দঘন মুহূর্ত। কিন্তু এমন এক সময় আমাদের মাঝে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপস্থিত যখন বিশ্বব্যাপী করোনার আঘাতে বাংলাদেশও ক্ষত-বিক্ষত। করোনা সংক্রমণ এবং মৃত্যুতে মানুষ দুর্বিষহ পরিস্থিতি মোকাবিলা করছে। তবুও দেশের বিদ্যমান ক্রান্তি-লগ্নে সব ভেদাভেদ ভুলে সবাইকে ঈদের আনন্দ নিজেদের ভাগ করে নিতে হবে।

বিত্তবানদের উদ্দেশ্যে ন্যাপ নেতৃদ্বয় বলেন, কোনো অসহায় ও দুস্থ শ্রমজীবী মানুষ যেন অভুক্ত না থাকে সেজন্য যারা সচ্ছল ব্যক্তি তারা যেন তাদের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন, যাতে নিরন্ন, শ্রমজীবী মানুষরাও ঈদের আনন্দের অংশীদার হতে পারে। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির কারণে মানুষের আয়-রোজগার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দরিদ্র ও মধ্যবিত্ত পরিবারগুলো অতি কষ্টে দিনাতিপাত করছে। এ অবস্থায় বিত্তবানদের উচিত অসহায়, দরিদ্র আত্মীয়-স্বজন, অধীনস্ত, প্রতিবেশীসহ ক্ষতিগ্রস্ত সব গরিব-দুঃখী মানুষের সহযোগিতায় এগিয়ে আসা।

তারা বলেন, করোনাভাইরাসের মহামারিতে এখন বিশ্ব সম্প্রদায়ের মধ্যে বিরাজ করছে নিরানন্দ, ভয় ও আতঙ্ক। এই অদৃশ্য আততায়ী করোনার কবল থেকে মানুষকে রক্ষা করতে আমরা মহান রাব্বুল আলামীনের কাছে প্রার্থনা করি।

এই পবিত্র দিনে বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের গৃহে প্রবাহিত হোক শান্তির অমীয় ধারা। পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দিনে আমরা এই কামনা করি।

কেএইচ/এমআরআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]