সন্ধ্যায় দক্ষিণাঞ্চলগামী লঞ্চে যাত্রী বেড়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৫২ পিএম, ২৪ মে ২০২১

রাজধানীর সদরঘাট টার্মিনালে সকাল থেকে নির্দিষ্ট গন্তব্যে যাত্রী নিয়ে ছেড়ে যাচ্ছে লঞ্চ। তবে সকালে স্বাভাবিকের তুলনায় যাত্রীর সংখ্যা কম ছিল। সন্ধ্যায় দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রী বেড়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

সোমবার (২৪ মে) সকালে সরেজমিনে দেখা যায়, লালকুঠি থেকে বাদামতলী পর্যন্ত অর্ধশতাধিক লঞ্চ সদরঘাট টার্মিনালে নোঙর করা রয়েছে। এর মধ্যে চাঁদপুর, শরীয়তপুর, মুলাদীগামী লঞ্চগুলো ৩০ মিনিট পরপরই যাত্রী নিয়ে ছেড়ে যাচ্ছে। কিন্তু লঞ্চগুলোতে যাত্রীর সংখ্যা কম। বিকেলে বরিশাল, পটুয়াখালী, বরগুনাগামী প্রতিটি লঞ্চে যাত্রী বেড়েছে।

লঞ্চ মালিকরা জানিয়েছেন, স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে লঞ্চে অর্ধেক যাত্রী পরিবহন করছেন তারা। এ জন্য ভাড়াও নেয়া হচ্ছে ৬০ ভাগ বেশি।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) ঢাকা নদী বন্দরের নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের যুগ্ম পরিচালক জয়নাল আবেদীন জাগো নিউজকে বলেন, সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ৪০টির বেশি লঞ্চ যাত্রী নিয়ে নির্দিষ্ট গন্তব্যে ছেড়ে গেছে। প্রতিটি লঞ্চে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে কি-না, তা তদারকি করছি। ঘাটে যাত্রীর সংখ্যা কম থাকায় সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনেই লঞ্চে যাতায়াত করছে।

এর আগে রোববার সরকার বাস, ট্রেন, লঞ্চসহ সব ধরনের গণপরিবহন চলাচলের ঘোষণা দেয়। তবে গণপরিবহনে অর্ধেক যাত্রী, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। এছাড়া করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে বিধিনিষেধ আরও এক সপ্তাহের জন্য বাড়িয়েছে সরকার, যা ৩০ মে মধ্যরাত পর্যন্ত বহাল থাকবে।

গত শনিবার (২১ মে) এক সংবাদ সম্মেলনে ২৪ মে থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগের মতো লঞ্চ চলাচলের দাবি জানিয়েছিল বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল যাত্রী পরিবহন সংস্থা।

এ সময় লিখিত বক্তব্যে সংস্থাটির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট বদিউজ্জামান বাদল ছয় দফা দাবিও জানিয়েছিলেন।

এগুলো হলো- শ্রমিক কর্মচারীদের বেতন-বোনাস দেয়ার জন্য সংস্থার পক্ষ থেকে ৫ মে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব, নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী ও বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান বরাবর প্রণোদনার জন্য যে আবেদন করা হয়েছে তা অনতিবিলম্বে মালিকদের মাঝে বণ্টন করা।

এছাড়া এনবিআরের ধারণক্ষমতার ওপর অগ্রিম প্রদত্ত ছয় মাসের ট্যাক্স আনুপাতিক হারে মওকুফ, বিআইডব্লিউটিএ’র ছয় মাসের কারভেন্সি ও বার্লিং চার্জ মওকুফ, নৌ-পরিবহন অধিদফতরের ছয় মাসের সার্ভে ফি মওকুফ ও ব্যাংক লোনের ছয় মাসের সুদ মওকুফের দাবি জানান তিনি।

এমএমএ/জেডএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]