পর্যটনের জন্য স্বতন্ত্র মন্ত্রণালয় গঠনের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:০৬ পিএম, ১২ জুন ২০২১

করোনায় বিপর্যস্ত পর্যটন খাত পুনর্গঠন, শ্রমিক-কর্মচারীদের সুরক্ষায় বাজেটে বিশেষ বরাদ্দ এবং পর্যটনের জন্য স্বতন্ত্র মন্ত্রণালয় গঠনের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ট্যুরিজম অ্যান্ড হোটেলস ওয়ার্কার্স-এমপ্লয়িজ ফেডারেশন।

শনিবার (১২ জুন) বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মিলনায়তনে ‘বাজেট ভাবনা: করোনাকালে বিপর্যস্ত পর্যটন খাত এবং পর্যটন শিল্পের শ্রমিক-কর্মচারীদের সুরক্ষায় করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এ দাবি জানানো হয়।

এছাড়াও সভায় বক্তারা একাধিক দাবি তুলে ধরেন। দাবিগুলো হলো- বাজেটে পর্যটন আবাসন, হোটেল-রেস্তোরা, পর্যটন পরিবহনসহ পর্যটনের ১২টি উপখাতের ১১৯ ধরনের কাজে নিযুক্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের খাদ্য, আবাসন, চাকরি ও সামাজিক নিরাপত্তাসহ করোনাকালে সুরক্ষার জন্য বাজেটে প্রয়োজনীয় বরাদ্দ, পর্যটন সংশ্লিষ্ট সব উপখাতের শ্রমিক-কর্মচারীদের শ্রম আইনে অন্তর্ভুক্তকরণ ও আইনের বাস্তবায়ন, পর্যটন জেলাগুলোতে শ্রম আদালত- শ্রম পরিচালক-শ্রম পরিদর্শকের দফতর স্থাপন, পর্যটন খাতের শ্রমিক-কর্মচারীদের জন্য মজুরি কাঠামো নির্ধারণ, করোনা টিকা প্রদানে উৎপাদনে যুক্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের অগ্রাধিকার প্রদান, নিয়োগের ক্ষেত্রে বিদেশি বা স্বজনপ্রীতি বন্ধ এবং হোটেল-রেস্তোঁরা আইন-২০১৪ বাস্তবায়ন, দুর্যোগে শিল্প ও শ্রমিকের সুরক্ষা এবং শ্রমিক-কর্মচারীদের জন্য অবসরকালীন নিরাপত্তার জন্য বিশেষ তহবিল গঠন, রাষ্ট্রীয় সব অবকাঠামো
নির্মাণ পরিকল্পনায় পর্যটন বিশেষজ্ঞদের যুক্ত করতে হবে।

বাংলাদেশ ট্যুরিজম এন্ড হোটেলস ওয়ার্কার্স-এমপ্লয়িজ ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির আহবায়ক মোহা. রাশেদুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব আহসান হাবিব বুলবুলের সঞ্চালনায় সভায় সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি রাজেকুজ্জামান রতন, বাংলাদেশ ট্যুরিজম ফাউন্ডেশনের সভাপতি মোখলেছুর রহমান, বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী আশিকুল আলম, যুগ্ম আহবায়ক শাহীদুল ইসলাম, ফরহাদ হোসেন, শামীম আহমেদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এমএমএ/এসএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]