আনসার আল ইসলামের সিরিয়াফেরত আইটি বিশেষজ্ঞ গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:০২ পিএম, ১২ জুন ২০২১

চট্টগ্রাম নগরের খুলশী এলাকায় অভিযান চালিয়ে মো. শাখাওয়াত আলী ওরফে লালু (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তিনি নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংঘটন ‘আনসার আল ইসলাম’-এর আইটি বিশেষজ্ঞ বলে জানিয়েছে পুলিশ। তার কাছ থেকে বিভিন্ন জিহাদি কাগজপত্র, একটি পাসপোর্ট, একটি মোবাইল ফোন, ট্যাব ও মিনি নোটবুক জব্দ করা হয়।

শুক্রবার (১১ জুন) দিবাগত রাতে থানার দক্ষিণ খুলশী আবাসিকের আহলে হাদীস জামে মসজিদ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে নগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। শাখাওয়াত আলী খুলশীর ওয়াসা মোড় বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

পুলিশ জানায়, ২০১২ সালে তার ভায়রা ভাই আরিফ ও মামুনের অনুপ্রেরণায় জঙ্গি কার্যক্রমে সম্পৃক্ত হন শাখাওয়াত। পরবর্তীতে তাদের সংগঠনের নেতা মোয়াজ (চাকরিচ্যুত মেজর জিয়া), মনসুরাবাদ এলাকার হুজুর শফিক এবং লালখান বাজার এলাকার এসির দোকানে কর্মচারী ওমর ফারুকের সহায়তায় দেশের বিভিন্ন স্থানে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

২০১৭ সালে শাখাওয়াত ‘জিহাদে’ অংশ নিতে তুরস্ক যান। সেখান থেকে সীমান্ত অতিক্রম করে সিরিয়ায় প্রবেশ করে দীর্ঘ ছয় মাস ‘হায়াত তাহরীর আরশাম’ নামে একজনের কাছে ভারি অস্ত্র চালানোর প্রশিক্ষণ নেন। এরপর তিনি সিরিয়ার ইদলিব এলাকায় আইএস এর হয়ে যুদ্ধে অংশ নেন। যুদ্ধশেষে তিনি বিভিন্ন দেশ ঘুরে ইন্দোনেশিয়ায় বসবাস করেন। সেখানেও তিনি জিহাদী কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

সর্বশেষ গত ২২ মার্চ শাখাওয়াত দেশে আসেন। এসেই তিনি পুনরায় জঙ্গি সংগঠনের কার্যক্রম শুরু করেন।
গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শুক্রবার দিবাগত রাতে চট্টগ্রামের খুলশী এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার শাহ মো. আবদুর রউফ জাগো নিউজকে বলেন, ‘শুক্রবার দিবাগত রাতে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংঘটন আনসার আল ইসলামের আইটি বিশেষজ্ঞ মো. শাখাওয়াত আলী ওরফে লালুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। তার বিরুদ্ধে খুলশী থানায় সন্ত্রাস দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আজ (শনিবার) ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।’

মিজানুর রহমান/এসএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]