‘স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় পরিচালনায় সফল ছিলেন নাসিম’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৫৬ পিএম, ১৪ জুন ২০২১
ফাইল ছবি

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসান বলেছেন, ‘২০১৪ সালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন মোহাম্মদ নাসিম। নিজে চিকিৎসক ছিলেন না, কিন্তু পাঁচ বছর সফলতার সঙ্গে মন্ত্রণালয় পরিচালনা করেছেন। তাকে নিয়ে কখনো সমালোচনা হয়নি। তিনি অত্যন্ত দক্ষতা ও সাফল্যের সঙ্গে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় পরিচালনা করেছেন।’

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সাবেক মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সোমবার (১৪ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তথ্য প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসান বলেছেন, ‘রাজপথে বিরোধী শক্তির বিরুদ্ধে, অপশক্তির বিরুদ্ধে দাঁতভাঙা জবাব দেয়ার মতো যোগ্যতা ছিল মোহাম্মদ নাসিমের। তিনি থাকলে হেফাজতে ইসলামের নৈরাজ্য অনেক আগেই দমানো যেত।’

মুরাদ হাসান বলেন, ‘যারা মুক্তিসংগ্রামের বিরোধিতা করেছে, যারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বকে কোনো দিন মেনে নেয়নি, যারা বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুকে বিতর্কিত করতে চেয়েছে, যারা বাংলাদেশের স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি জামায়াতে ইসলামকে সঙ্গে নিয়ে অপরাজনীতি করেছে, তাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার বর্জকণ্ঠ ছিলেন আমাদের শ্রদ্ধের নেতা মোহাম্মদ নাসিম।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘রাজপথে বিরোধী শক্তির বিরুদ্ধে, অপশক্তির বিরুদ্ধে দাঁতভাঙা জবাব দেয়ার মতো যোগ্যতা ছিল মোহাম্মদ নাসিমের। তার মতো অসামান্য সাংগঠনিক দক্ষতা সম্পন্ন নেতৃত্বের আজ বড়ই অভাব।’

তিনি আরও বলেন, ‘নেতা তৈরির কারিগর ছিলেন মোহাম্মদ নাসিম, তিনি ছিলেন শিক্ষক। আন্দোলন সংগ্রাম কীভাবে গড়ে তুলতে হয়, তার প্রধান সেনাপতি ছিলেন তিনি।’

ডা. মুরাদ বলেন, ‘ভোট ডাকাতি ও চুরি মাধ্যমে খালেদা-নিজামী সরকার গঠন করেছিল। এরপর বেগম জিয়া ও নিজামী সরকারের পেটুয়াবাহিনী ন্যক্করজনক ঘটনার জন্ম দিয়েছিল। বাংলাদেশকে একটি সন্ত্রাসী রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছিল, জঙ্গিবাদের রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছিল।’

‘আমরা দেখেছি আপারেশন ক্লিনহার্ট, হাজার হাজার নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছে। আমরা সেই সময় দেখেছি অসীম সাহস নিয়ে মোহাম্মদ নাসিম রাজপথে বসে থেকেছেন। কোনো হুমকি, ধামকি, পুলিশের লাঠির আঘাত কোনো কিছু তাকে দামিয়ে রাখতে পারেনি। কোনো রক্তচক্ষু, হুমকি টলাতে পারেনি তাকে’ বলেন মুরাদ হাসান।

তিনি আরও বলেন, ‘যখন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকি পালন করা হচ্ছিল এবং আমরা স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছি, সে সময় ২৬-২৭ মার্চ আন্দোলনের নামে হেফাজত ইসলাম নৈরাজ্য, ভাঙচুর করে দেশে একটি জঘন্য পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছিল। এমন সময় নাসিমের মতো নেতৃত্বের দরকার ছিল। এদেরকে কীভাবে দাঁতভাঙা জবাব দিতে হয় রাজপথে নেমে…। আমি বিশ্বস করি- নাসিম চাচা থাকলে হেফাজতকে অনেক আগেই দমন করা সম্ভব হতো।’

এমএএস/এএএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]