ফায়ার সার্ভিস অধিদফতরের বার্ষিক চুক্তি সই

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৩১ পিএম, ২৩ জুন ২০২১

দায়বদ্ধতা নিশ্চিতকরণ, প্রতিযোগিতামূলক কর্মপরিবেশ সৃষ্টি, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠা, সেবার মানোন্নয়ন, জনগণের দোড়গোড়ায় সেবা পৌঁছানো এবং প্রদত্ত সেবা সহজীকরণের জন্য ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের সঙ্গে কাজ করা মাঠপর্যায়ের সব দফতরের ২০২১-২২ অর্থবছরের বার্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

বুধবার (২৩ জুন) বিকেলে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে এ চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অধিদফতরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ হোসাইন। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ) যুগ্ম সচিব মো. হাবিবুর রহমান।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সদর দফতরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (মিডিয়া সেল) মো. শাহজাহান শিকদার স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।

শাহজাহান শিকদার জানান, ঢাকা বিভাগের ট্রেনিং কমপ্লেক্স এবং কেন্দ্রীয় কারিগরি কারখানার সঙ্গে সরাসরি ও অন্য সাতটি বিভাগের সঙ্গে অনলাইনে অধিদফতরের এ চুক্তি স্বাক্ষর সম্পন্ন হয়। ফায়ার সার্ভিস অধিদফতরের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন মহাপরিচালক এবং বিভাগের পক্ষে বিভাগীয় উপ-পরিচালকরা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

অনলাইনে চুক্তি স্বাক্ষরের পর প্রথমে মহাপরিচালক এবং পরে বিভাগীয় উপ-পরিচালকরা স্বাক্ষরিত চুক্তি ক্যামেরায় ধরে সবার সামনে তুলে ধরেন। ২০২১-২২ অর্থবছরের চুক্তিতে মোট ৪১টি বিষয় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়নে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালনের স্বীকৃতি হিসেবে তিন কর্মকর্তাকে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন। বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়নে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালনের স্বীকৃতি হিসেবে এ স্মারক তুলে দেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক।

সম্মাননা পওয়া কর্মকর্তারা হলেন—চট্টগ্রাম বিভাগের উপ-পরিচালক শামীম আহসান চৌধুরী, ঢাকা বিভাগের উপরিচালক দিনমনি শর্মা ও রিফর্ম সেলের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মোহাম্মদ হিরণ। এ সময় অধিদফতরের পরিচালক, প্রকল্প পরিচালক এবং অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

টিটি/এএএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]