‘এইবার ব্যবসা খাইছে অনলাইন’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:২৫ পিএম, ২২ জুলাই ২০২১

মুসলমানদের অন্যতম বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহায় তিনদিন পর্যন্ত পশু কোরবানির নিয়ম রয়েছে। তবে ঈদের প্রথম ও দ্বিতীয় দিনের মধ্যেই প্রায় সবার পশু কোরবানি শেষ হয়ে যায়। তাই ঈদের দ্বিতীয় দিনে পুরোপুরি ফাঁকা পশুর হাটগুলো।

বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) গাবতলীর পশুর হাটে সুনশান নীরবতা দেখা গেছে। হাটের বর্ধিতাংশে বাঁশ দিয়ে পশু রাখার জন্য অস্থায়ীভাবে তৈরি করা বেশিরভাগ জায়গায় ফাঁকা ছিল। সরেজমিনে দেখা যায়, পশু না বিক্রি করতে পারায় গরুবাহী ট্রাকের অপেক্ষায় রয়েছেন ৪-৫ জন ব্যবসায়ী। ট্রাক আসলেই তারা চলে যাবেন। অন্যদিকে, পশু কিনতেও হাটে এসেছেন হাতেগোনা কয়েকজন।

jagonews24

বেসরকারি কোম্পানির কর্মকর্তা কালাম এসেছেন তার প্রতিষ্ঠানের মালিকের জন্য গরু কিনতে। তিনি বলেন, ‘স্যার, তো অনেকগুলা গরু কোরবানি দেয়, আজকে একটা বড় গরু নিয়ে যেতে বললো। ১০-১৫ মনের গরু খুঁজতেছি। কিন্তু এখানে দাম বেশি বলতেছে। দেখি অন্য কোথাও কমে পাই কি-না।’

সিরাজগঞ্জের হাসিনা এগ্রো হাটে তুলেছিল ৮০টি গরু; যার মধ্যে ঈদের দিন পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে ৪২টি। হাটে গরু বিক্রি করে তেমন একটা সুবিধা করতে না পারলেও অনলাইনে ২৫টি গরু বিক্রি করে ভালো লাভ পেয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

jagonews24

প্রতিষ্ঠানটির প্রতিনিধি ইয়াকুব হোসেন বলেন, ‘শনিবার হাটে আসছিলাম। সব গরু লসে বিক্রি করছি। এর চেয়ে আমাদের দেশের বাড়ির বাজার ভালো। ৯ মণ মাংসের গরু এইখানে ৫ লাখ টাকা দাম চাইছি। কিন্তু আড়াইয়ের ওপর কেউ বলে না। অথচ উল্লাপাড়ায় ৩ লাখ পর্যন্ত বলছে।’

অনলাইনে গরু বিক্রিতে লাভ হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এখানে ৩২টা আর ফার্মে ছয়টা গরু আছে। অনলাইনে সবগুলা গরুতেই লাভ হয়েছে। আগামীতে হয়তো হাটে গরু বিক্রি করেও লাভ হবে।’

jagonews24

সিরাজগঞ্জ থেকে আসা ব্যবসায়ী আসলাম বলেন, ‘৬৫টা গরু আনছিলাম। মাত্র পাঁচটা বিক্রি করতে পারছি। এইবার কেউ দামও বলে না। ট্রাক আসতেছে, সন্ধ্যার পরে চলে যাবো।’

গরু বিক্রি না হওয়ার কারণ হিসেবে তিনি করোনা ও অনলাইন হাটকে দায়ী করেছেন। আসলাম বলেন, ‘মানুষের হাতে টাকা নাই। অনেকেই কোরনানি দিতে পারে নাই। যারা বড় গরু দিছে অনলাইন থেকে কিনছে। এই অনলাইনই এবার গরুর ব্যবসা খাইছে।’

এসএম/এমআরআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]