আল্লামা ইদ্রিছ রজভী আর নেই

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১০:১০ পিএম, ২৭ জুলাই ২০২১

চরণদ্বীপ রজভীয়া ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা মুফতি মুহাম্মদ ইদ্রিছ রজভী ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না-লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজেউন)।

মঙ্গলবার (২৭জুলাই) বিকেল পাঁচটায় নগরীর একটি ক্লিনিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যকালে তার বয়স হয়েছিল ১১৫ বছর।

তার ইন্তেকালে চট্টগ্রামসহ দেশব্যাপী সুন্নি মহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

বুধবার সকাল ১১টায় বোয়ালখালী শ্রীপুর বুড়া মসজিদ ঈদগা মাঠে নামাজে জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

মুফতি মুহাম্মদ ইদ্রিছ রজভী বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য। আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআতের উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করেছেন।

সংক্ষিপ্ত পরিচয়

চট্টগ্রাম জেলার বোয়ালখালী উপজেলার চরণদ্বীপ গ্রামে ১৯০৬ সালের ১ জানুয়ারি এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন মুহাম্মদ ইদ্রিছ রজভী। পিতার বিশেষ তত্ত্বাবধানে প্রাথমিক শিক্ষা লাভের পর হাটহাজারী মেখলে অবস্থিত এমদাদুল ইসলাম মাদরাসা থেকে ফাজিল পড়েন। এরপর চট্টগ্রাম দারুল উলুম আলিয়া মাদরাসা থেকে কামিল পাস করেন। এরপর ভারতের উত্তর প্রদেশে মানজারুল উলুম থেকে কুরআন, হাদিস, তাফসীর, বিশেষ করে ফিকাহ শাস্ত্রে জ্ঞান অর্জন করেন।

কর্মজীবন

ভারত থেকে স্বদেশে প্রত্যাবর্তন করে প্রথম তিনি রাউজান থানার অন্তর্গত কদলপুর গ্রামে অবস্থিত হামিদিয়া সিনিয়র মাদরাসায় শিক্ষকতা শুরু করেন। এর কিছুদিন পর রাউজানে অবস্থিত দারুল ইসলাম মাদরাসায়ও শিক্ষকতা শুরু করেন। এরপর তিনি চট্টগ্রামের জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া মাদরাসায় বেশ কিছুদিন অধ্যাপনা করেন।

আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেয়ার লক্ষ্যে তিনি ১৯৫৩ সালে নিজ গ্রাম চরণদ্বীপে প্রতিষ্ঠা করেন চরণদ্বীপ রজভীয়া ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসা। সবশেষে এই মাদরাসার অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন শেষে তিনি এখান থেকেই অবসর নেন।

এমইউ/জেডএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]