বাঁশের ‘ব্যারিকেডে’র ভেতর জমজমাট বাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৪৬ পিএম, ২৯ জুলাই ২০২১

কঠোর বিধিনিষেধ কার্যকর করতে রাজধানীর মিরপুর ২ নম্বরের বড়বাগ বাজারের দুই প্রান্তে বসানো হয়েছে বাঁশের ব্যারিকেড। সেই ব্যারিকেডে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ হচ্ছে ঠিকই, কিন্তু থেমে নেই কেনাবেচা।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) দুপুরে ঘুরে দেখা গেছে ক্রেতা-বিক্রেতায় সয়লাব বাজার। খোলা আছে মুদিসহ সব ধরনের দোকান। মূল সড়কেই বসেছে মাছের বাজার।

দোকানদাররা বলছেন, বিধিনিষেধের শুরু থেকেই তারা এভাবে দোকান চালু রাখছেন। মুদি ও কাঁচাবাজারের পাশাপাশি অন্যান্য দোকানও চালু রয়েছে।

jagonews24

প্রতিদিনই রাস্তার দুই পাশে এই বাজার বসে বলে জানান ব্যবসায়ীরা। আগে যেমন সবজি, মাছ নিয়ে বসতেন বিক্রেতারা, ঠিক তেমনভাবে তারা বসেছেন।

করোনা সংক্রমণ ভয়াবহ আকার ধারণ করায় দেশে চলছে দুই সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ। এ সময় স্বাস্থ্যবিধি মানাতে সরকারের পক্ষ থেকে নানা উদ্যোগ নেয়া হলেও বাজারে স্বাস্থ্যবিধি ছিল একেবারেই উপেক্ষিত। মুখে মাস্কও থাকছে না দোকানিদের। মানা হচ্ছে না শারীরিক দূরত্ব।

কাঁঠাল বিক্রেতা সাজেদুল বলেন, ‘কাঁঠাল ভালোই বিক্রি হচ্ছে। সকাল থেকে মোটামুটি ৩০ পিস বিক্রি করেছি।’

jagonews24

কাঁকড়া বিক্রেতা রাসেল জানান, স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে কেউ কিছু বলেনি। তিনি ভেতরে একটি মাছের দোকানে কাঁকড়া বিক্রি করলেও সরকারি নির্দেশনা মেনে রাস্তায় খোলা জায়গায় বিক্রি করছেন।

জাগো নিউজকে তিনি বলেন, ‘আট কেজি কাঁকড়া আনছিলাম। বৃষ্টির কারণে ক্রেতা কম, আর পাঁচ কেজি আছে। বিকেলের মধ্যেই সব বিক্রি হয়ে যাবে।’

বিক্রেতারা বলছেন, রাত আটটার পর দোকান খোলার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও পুলিশের টহল গাড়ি চলে গেলে তারা ফের দোকান খুলছেন।

এসএম/জেডএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]