মশা মারতে ১১ ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, জরিমানা ৪ লাখ টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৫৬ পিএম, ০২ আগস্ট ২০২১

এডিস মশার লার্ভা নিয়ন্ত্রণে সোমবার (২ আগস্ট) অভিযান পরিচালনা করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ১১টি ভ্রাম্যমাণ আদালত।

অভিযানের সময় মশার লার্ভা পাওয়ায় ২৮টি নির্মাণাধীন ভবন ও বাসা-বাড়িকে ৩ লাখ ৮৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের মধ্যে অঞ্চল-১ এর গ্রিন রোড ও নিউ ইস্কাটনে মাহফুজুল আলম মাসুম, অঞ্চল-২ এর মালিবাগ বাজার ও ফুলবাগে মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন, অঞ্চল-৩ এর পশ্চিম ইসলামবাগ ও চকবাজারে তৌহিদুজ্জামান পাভেল, অঞ্চল-৫ এর ধলপুর ও গোলাপবাগে মুহাম্মদ হাসনাত মোর্শেদ ভূঁইয়া, অঞ্চল-৬ এর আমুলিয়ায় শাহীন রেজা, অঞ্চল-৮ এর ডগাইরে কাজী হাফিজুল আমিন এবং অঞ্চল-১০ এর কদমতলী ও অঞ্চল-২ এর দক্ষিণ বনশ্রী এলাকায় বিকাশ বিশ্বাস ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

এছাড়াও আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তাদের (আনিক) মধ্যে ধানমন্ডি ১, ২, ৩ ও ৪ নম্বরের ৯৫টি বাড়িতে চিরুনি অভিযান পরিচালনা করেন অঞ্চল-১ এর মেরীনা নাজনীন।

অপরদিকে অঞ্চল-৩ এর আনিক বাবর আলী মীর লালবাগে, অঞ্চল-৪ এর আনিক মো. হায়দর আলী কাজি নর্থ সাউথ রোড, আলাউদ্দিন রোড ও রায়সাহেব বাজারে এবং অঞ্চল-৭ এর আনিক ড. মোহাম্মদ মাহে আলম দক্ষিণ মান্ডা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন।

এর মধ্যে লালবাগের পাস্তা কাবাবে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় আনিক-৩ বাবর আলী মীর ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতগুলো ৪১৪টি নির্মাণাধীন ভবন, বাসা-বাড়ি ও প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করেন। এর মধ্যে ২৯টি নির্মাণাধীন ভবন ও বাড়িতে মশার লার্ভা পাওয়ায় ২৯টি মামলা এবং মোট ৩ লাখ ৮৪ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

এছাড়া এডিস মশার লার্ভা প্রজনন উপযোগী পরিবেশ বিরাজ করায় ৩৫টি বাসা ও নির্মাণাধীন ভবনকে সতর্ক করা হয়।

এমএমএ/জেডএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]