বিদেশফেরতদের পুনর্বাসনের উদ্যোগ সরকারের

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:১৬ পিএম, ২৩ আগস্ট ২০২১
ফাইল ছবি

প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, বিদেশফেরত কর্মীদের আর্থ-সামাজিকভাবে পুনর্বাসনের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। প্রবাসীদের জন্য স্বল্প সুদে ব্যাংক ঋণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও তাদের পুনর্বাসনের প্রয়োজনীয় পরামর্শসহ দেশে-বিদেশে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সোমবার সকাল ১০টায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালের আয়োজনে ‘প্যানডেমিক অ্যান্ড লাইট অব দ্য রিটার্নিং মাইক্রোওয়ার্কারস অব বাংলাদেশ: বঙ্গবন্ধু’স ভিশন অ্যাসিভমেন্ট অ্যান্ড ওয়ে ফরওয়ার্ড’ বিষয়ক ওয়েবিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, প্রবাসীরা বিদেশের মাটিতে মাথার ঘাম পায়ে ফেলে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করছে। সেই মুদ্রা পাঠিয়ে আমাদের দেশের অর্থনীতির চাকা সচল করছে। তারা হলেন প্রকৃত রেমিট্যান্সযোদ্ধা। তাদের এ রেমিট্যান্স বৈধভাবে দেশে পাঠানোর জন্য দুই শতাংশ প্রণোদনা দেয়া হচ্ছে। আর সে কারণে রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধি পেয়েছে।

ওয়েবিনারে অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য দেন, বাংলাদেশ ইউনির্ভাসিটি অব প্রফেশনালসের ভাইস চ্যান্সেলর মেজর জেনারেল মো. মুশফিকুর রহমান, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর এম প্রফেসর আবুল কাশেম মজুমদার ও জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. শহীদুল আলম মজুমদার। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রফেসর ড. রুমানা ইসলাম।

একইদিন অন্য একটি অনুষ্ঠানে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, আন্তর্জাতিক শ্রমবাজারে দক্ষকর্মী পাঠানোর জন্য প্রশিক্ষণে গুরুত্ব দিয়েছে সরকার। যথাযথ প্রশিক্ষণ দিয়ে বিদেশে দক্ষকর্মী পাঠাতে পারলে গুণগত শ্রম অভিবাসন নিশ্চিত করা যায়। এছাড়াও অধিক পরিমাণে রেমিট্যান্স প্রবাহ নিশ্চিত হবে।

মন্ত্রী বলেন, আজ ৪০টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ৩২টি প্রশিক্ষণ কার ও ৮টি ট্রাক হস্তান্তর করেছি। তিনি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সব অধ্যক্ষসহ শিক্ষকদের ড্রাইভিং শেখার পরামর্শ দেন।

আজ ২৩ আগস্ট দুপুরে জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো ৪০টি প্রশিক্ষণকার হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. শহীদুল আলমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন।

এমআরএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]