মুজিববর্ষে আমাদের অঙ্গীকার হোক দাদন কারবারিদের বিরুদ্ধে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:১৯ পিএম, ৩০ আগস্ট ২০২১

দাদন কারবারিদের চাপে পড়ে মানুষকে জায়গা-জমি বন্ধক দিতে হয়, মুজিববর্ষে আমাদের অঙ্গীকার হোক দাদন ব্যবসার বিরুদ্ধে। তাহলেই আমরা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলতে পারবো।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে সরকার অনেক ক্ষেত্রে সফলতা অর্জন করেছে। জঙ্গি, মাদক, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছে। এবার দরকার দাদনের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করা।

কোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে করা ফেসবুক লাইভে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বড় বড় জঙ্গি যদি দমন করা যায়, তাহলে দাদন কারবারিদের সিন্ডিকেট ভেঙে দেওয়া কোনো বিষয় নয়। এজন্য ডিসি, ইউএনওরা তালিকা তৈরি করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারেন। তাহলে অনেক অনেক মানুষ বেঁচে যাবে। বাংলাদেশে ৮৪টি মাইক্রোক্রেডিটের অথরিটি লাইসেন্স আছে। অথচ ১০ থেকে ২০ হাজার মানুষ সুদের কারবার করছে। বাংলাদেশ ব্যাংক যদি এটা নিয়ে কোনোভাবে নাড়াচাড়া করে তাহলেই হবে। কারণ বাংলাদেশ ব্যাংক ও সরকার চাইলে এই নেটওয়ার্ক ভেঙে দেওয়া সম্ভব।

তিনি আরও বলেন, দাদন ব্যবসায়ীদের নেটওয়ার্ক ভাঙতে কাউকে গুলি করতে হবে না। বড় কোনো অভিযান চালাতে হবে না। শুধু কারা কারা এই দাদন কারবারের সঙ্গে জড়িত তাদের তালিকা করলেই হবে। দাদন কারবার নিয়ন্ত্রণে শপথ নিতে চাই।

এফএইচ/এমএসএম/এমআরএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]