চিকিৎসক কৌশিকির মৃত্যুতে ডিএসসিসি মেয়রের শোক

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৫১ এএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) স্বাস্থ্য বিভাগের আওতাধীন নাজিরা বাজার মাতৃসদনের চিকিৎসক নিবেদিতা রুচী কৌশিকির মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন সংস্থাটির মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) এক শোকবার্তায় ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস বলেন, নিবেদিতা রুচী কৌশিকি একজন নিবেদিতপ্রাণ চিকিৎসক ছিলেন। তিনি নাজিরা বাজার মাতৃসদনে শিশুদের প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা এবং নারী ও প্রসূতি চিকিৎসা সেবা প্রদান কার্যক্রমে সম্পৃক্ত ছিলেন।

শেখ তাপস আরও বলেন, দায়িত্ব-কর্তব্যে সদা যত্নবান চিকিৎসক কৌশিকি অমায়িক মানুষ ছিলেন। তার ওপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনে তিনি সবসময় সচেষ্ট ছিলেন এবং ঢাকাবাসীর চিকিৎসাসেবা বিশেষত শূন্য থেকে পাঁচ বছর বয়সী শিশুদের প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা এবং স্ত্রীরোগ ও প্রসূতি চিকিৎসা সেবার ক্ষেত্রে তিনি অত্যন্ত দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেন। তার মৃত্যুতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন পরিবার শোকাহত।

শেখ তাপস প্রয়াত চিকিৎসক কৌশিকির বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

জানা গেছে, দুই মাস আগে চিকিৎসক কৌশিকি কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছিলেন। করোনা থেকে সুস্থ হয়ে তিনি আবারও কাজে যোগ দেন। কয়েক দিন আগে তিনি ‘পোস্ট কোভিড লক্ষণ’ নিয়ে প্রথমে মনোয়ারা হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে রক্ত শূন্যতাসহ নানাবিধ শারীরিক জটিলতা দেখা দিলে পরবর্তীতে তাকে বিআরবি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার ভোরে তিনি মারা যান।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৩৯ বছর। তিনি ২০১৪ সালে ঢাকা দক্ষিণ সিটির আওতাধীন মহানগর শিশু হাসপাতালে মেডিকেল অফিসার হিসেবে যোগদান করেন। ২০১৭ সালে তাকে নাজিরা বাজার মাতৃসদনে একই পদে সংযুক্ত করা হয়।

টাঙ্গাইল জেলার দেলদুয়ার উপজেলার দেউলী গ্রামে তার দাহ কার্যসহ পরবর্তী কার্যক্রম সম্পাদন করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

এমএমএ/এমআরআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]