হত্যাচেষ্টা মামলায় অস্ত্রসহ গ্রেফতার দুই

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:১৯ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

রাজধানীর খিলগাঁও ফ্লাইওভারের নিচে ২ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সাইফুল ইসলামকে হত্যাচেষ্টায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) কুমিল্লা জেলার বুরুডা থানার আমড়াতলি থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- মো. মনিরুজ্জামান সবুজ ও মো. ইমন। এসময় গ্রেফতারদের দেওয়া তথ্যমতে রাজধানীর খিলগাঁও থানার ত্রিমোহনী থেকে দুইটি পিস্তল ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে পুলিশ।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার এসব তথ্য জানান।

গত ১৫ মে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে খিলগাঁও ফ্লাইওভারের নিচে রেমন্ড টেইলার্সের সামনের রাস্তায় মনিরুজ্জামান সুমন ও তার সহযোগীরা সাইফুল ইসলামকে গুলি করে সদলবলে পালিয়ে যান। আহত অবস্থায় সাইফুল নিজেই সিএনজি নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। এ ঘটনায় সাইফুলের স্ত্রীর অভিযোগে সবুজবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।

case-1

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতাররা জানিয়েছেন, ভুক্তভোগী সাইফুল, কচি, রিপন ও সুমন বন্ধু ছিলেন। সাইফুল পদ পাওয়ার পর থেকে তাদের সম্পর্কে ফাটল সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে তারা পৃথক দল হয়ে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড করতে থাকেন। রিপন গ্রুপের সদস্য বাশার হত্যা মামলায় সাইফুল প্রধান আসামি ছিলেন। এরপর সাইফুল জেল থেকে জামিন নিয়ে বের হলে সুমন ও রিমন গ্রুপ এলাকায় আধিপত্য কমে যাওয়ার ভয়ে তাকে হত্যা করার পরিকল্পনা করেন।

পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই রিপন, কচি, সুমনসহ ১২ থেকে ১৩ জন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। এসময় রিপন সাইফুলকে ২ রাউন্ড ও সুমন ১ রাউন্ড গুলি করে সবাই ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান।

এই মামলায় নয়জন অভিযুক্তের মধ্যে চারজনকে গ্রেফতার করে সোপর্দ করা হয়েছে। তারা হলেন- মো. মঞ্জুরুল হক কচি, রাসেল তালুকদার ওরফে চাপাতি রাসেল, মো. উজ্জল তালুকদার ও মো. আমির। এ ঘটনায় পলাতক রিপনসহ বাকি পলাতকদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এএএম/ইউএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]