প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বকে চমকে দিয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৫০ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

আশির দশকে বাংলাদেশ মাত্র ৭০ মিলিয়ন ডলার উন্নয়ন সহযোগিতার জন্য সে সময়ের রথী-মহারথী অর্থনীতিবিদদের ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে প্যারিসে জবাবদিহি করতে হতো। কিন্তু আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কাকে ২০০ মিলিয়ন ডলার ঋণ দিয়েছে এবং বিশ্বকে চমকে দিয়েছে।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাতে রাজধানীর হোটেল লা মেরিডিয়ানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত ‘জয়তু শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক গ্র্যান্ডমাস্টার্স দাবা টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশন আয়োজিত ৯ দিনের এই টুর্নামেন্টে পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের সহ-সভাপতি এবং কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান ড. চৌধুরী নাফিজ সরাফাত।

এ সময় আইজিপি আরও বলেন, আজ থেকে ১৫ বছর আগেও বাংলাদেশ ওয়ার্ল্ড ব্যাংক, এডিবি, আইএমএফ’র দিকে তাকিয়ে থাকতো। আজ বাংলাদেশ আশপাশের সহযোগী দেশে, আফ্রিকার দেশ সুদানে উন্নয়নের জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।

‘এর চেয়ে বড় প্রাপ্তির আর কী হতে পারে। আমরা এ জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞ। ২০০৯ সালে তিনি যখন দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসেন তখন বাংলাদেশের ৪৫ ভাগ মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস কর‍তো। এখন সেটি ৯ ভাগের নিচে। দুর্ভাগ্য যে মহামারীর জন্য সেটি আরও নিচে নামতে পারেনি।’

আইজিপি বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রীকে জন্মদিনের আগাম শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। আমরা অনেক গর্বিত ও আনন্দিত এমন একজন মহীয়সী নারীর নামে এটা করতে পারার জন্য। খেলায় যারা অংশগ্রহণ করেছেন তাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এই মহামারীর মধ্যেও তারা এখানে এসে খেলায় অংশগ্রহণ করেছেন।

চলতি বছর থেকে জেলা ও স্কুল পর্যায়ে দাবা শুরু করতে যাচ্ছে দাবা ফেডারেশন এমন ঘোষণা দিয়ে আইজিপি বলেন, অক্টোবরে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে আমরা আরও একটি আন্তর্জাতিক ইভেন্ট আয়োজন করবো।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের সহ-সভাপতি ড. চৌধুরী নাফিজ সরাফাত বলেন, আজ যে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন আমরা করতে যাচ্ছি সেটি একজন অনন্য নেতার নামে। শুধু বাংলাদেশের মানুষ নয়, পৃথিবীর সর্বত্র তাকে মানবতার জননী ও একজন শীর্ষস্থানীয় বৈশ্বিক চিন্তাবিদ হিসেবে মানুষ শ্রদ্ধা করে। বঙ্গবন্ধু যে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিলেন, সেটি বাস্তবায়িত হয়েছে অনন্য এক নেতার কয়েক দশকের সংগ্রামের মধ্য দিয়ে। আমাদের গণতন্ত্র, উন্নয়ন, জীবনমান, সমৃদ্ধ অর্থনীতি- সবকিছুই অর্জন সম্ভব হয়েছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রাজ্ঞ নেতৃত্বের মাধ্যমে।

বাংলাদেশসহ ১০টি দেশের ১২ জন গ্র্যান্ডমাস্টার, ১৬ জন আন্তর্জাতিক মাস্টার ও তিনজন নারী আন্তর্জাতিক মাস্টার এই টুর্নামেন্টে অংশ নিচ্ছেন। প্রতিযোগিতায় মোট নগদ ১৫ হাজার ডলার অর্থ পুরস্কার দেওয়া হবে।

বনানীর হোটেল শেরাটনে ২৭ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় হবে প্রতিযোগিতার সমাপনী অনুষ্ঠান।

টিটি/এমএইচআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]