ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালে কমেছে ডেঙ্গুরোগী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:১৩ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

চলতি মাসের শুরুর দিকের তুলনায় এখন রাজধানীর ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালে ডেঙ্গুরোগী ভর্তির সংখ্যা কমে এসেছে। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) এ হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি ছিলেন মোট ১৮ জন। যাদের মধ্যে বিকেল পর্যন্ত নতুন ভর্তি হয়েছেন আরও ছয়জন।

হাসপাতালের মেট্রোন বিভাগের তথ্য অনুসারে, সেপ্টেম্বরের শুরু থেকে প্রথম দুই সপ্তাহে গড়ে প্রতিদিন ৬০-৭০ জন রোগী ভর্তি হয়েছিলেন। যা দ্বিতীয় সপ্তাহের পর ধীরে ধীরে কমে আসে। গত এক সপ্তাহের ব্যবধানেও রোগীর সংখ্যা অর্ধেকে নেমেছে।

v

ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালের তথ্য বলছে, এক সপ্তাহ আগে ১৭ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) এ হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন ৩৬ জন ডেঙ্গুরোগী। এরপরের দিন কিছুটা বেড়ে শনিবার ৪৪ জন হয়। এরপর কমেছে। পরের দিন রোববার ভর্তি ছিলেন ৩৪ জন, সোমবার ৩১ জন, মঙ্গলবার ৩৩ জন, বুধবার ২৫ এবং বৃহস্পতিবার ২২ জন রোগী।

হাসপাতালের মেট্রোন রাবেয়া খাতুন বলেন, এ মাসের শুরুতে ডেঙ্গুরোগী ভর্তি নিয়ে হিমশিম খেতে হয়েছে। এ জন্য পুরুষ-নারীর আলাদা দুটি ডেঙ্গু ওয়ার্ড করা হয়েছিল। এখন সেগুলোতে রোগীর চাপ অনেক কম।

jagonews24

এদিকে সরেজমিনে পুরুষ ডেঙ্গু ওয়ার্ডে দেখা গেছে, সেখানে পাঁচজন ডেঙ্গুরোগী রয়েছেন। তাদের মধ্যে আক্রান্ত কোনো শিশু নেই। মোট পুরুষ ওয়ার্ডের আটজনের মধ্যে বাকিরা কেবিনে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

সেখানে চিকিৎসারত জ্যেষ্ঠ স্টাফ নার্স সাইফুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে যারা চিকিৎসা নিচ্ছেন, তাদের অবস্থা বেশ ভালো। কিছু রোগীর প্লাটিলেট কমার সমস্যা থাকলেও গুরুতর কেউ নেই।

jagonews24

এদিকে নারী ডেঙ্গু ওয়ার্ডে মোট ১০ জন রোগী রয়েছেন। এরমধ্যে দুজন শিশু।

রাজধানীর খিলগাঁও গোড়ান থেকে আসা শিশু ফাবিহা তাসমিমের পরিবারের সদস্যরা জানান, গত সোমবার ফাবিহার ডেঙ্গু শনাক্ত হয়। এরপর থেকে প্লাটিলেট কমছে। তবে সেখানে ভালো চিকিৎসা পাচ্ছেন তারা।

ফাবিহার চাচা মাশরুর আলম বলেন, গোড়ান এলাকায় অনেক শিশু ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছে।

এনএইচ/জেডএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]