‘কুড়িগ্রামে দুই বছরে ৪০ হাজার বাড়ি নদীগর্ভে’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:০৩ পিএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

তিস্তা, ধরলা, ব্রহ্মপুত্র ও দুধকুমার নদীর ভাঙনের ফলে গত দুই বছরে কুড়িগ্রামে ৪০ হাজার বাড়ি ভাঙনের শিকার হয় বলে দাবি করেছে ঢাকাস্থ কুড়িগ্রামবাসী।

নদী ভাঙনরোধে স্থায়ী সমাধানসহ ছয় দফা দাবি তুলে ধরে মানববন্ধনে তারা এ কথা বলেন।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

মানববন্ধনে অংশ নেওয়া ঢাকাস্থ কুড়িগ্রামবাসীর আহ্বায়ক মো. আখতারুজ্জামান জাগো নিউজকে বলেন, ‘কুড়িগ্রামসহ আশপাশের এলাকায় দারিদ্র্যসীমার নিচে বাস করে মানুষ। এই জেলার অধিকাংশ মানুষই দরিদ্র। এর মূল কারণ নদীভাঙন।’

তিনি বলেন, দুই বছরে জেলার ৪০ হাজার বাড়ি ভাঙনের শিকার হয়। দারিদ্র্যের হার বেশি এ জেলায়। আমরা এর সমাধান চাই।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন মেজর জেনারেল (অব.) আমসা আমিন, পরিবেশবিদ ও নদী গবেষক শেখ রোকন, তিস্তা নদী রক্ষা কমিটির সভাপতি ও বাপার নির্বাহী সদস্য ফরিদুল ইসলাম ফরিদ, কুড়িগ্রাম সমিতি ঢাকার মহাসচিব সাইদুল আবেদীন ডলার, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক পরিষদের (সিসাপ) সাধারণ সম্পাদক প্রফুল্ল কুমার রায় প্রমুখ।

আরএসএম/এমএইচআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]