সন্ধ্যার বৃষ্টিতে বেড়েছে যানজট, ১০ মিনিটের রাস্তা পেরোতে দেড়ঘণ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:০০ পিএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

নগরজীবনে যানজটে ভোগান্তি নতুন কিছু নয়। কর্মদিবসগুলোতে কম-বেশি যানজট লেগেই থাকে। কিন্তু রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বৃষ্টির কারণে যানজট আরও বেড়ে যায়। নিজ গন্তব্যে পৌঁছাতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে যাত্রীদের।

রাজধানীর বাড্ডা-মালিবাগ রোডে যানজট যেন লেগেই থাকে। দিন কিংবা রাত, বৃষ্টিতে অথবা প্রখর রোদ যাত্রীদের দুর্ভোগের শেষ নেই। প্রায় সময়েই দেখা যায় এমন চিত্র।

রোববার সন্ধ্যায় বৃষ্টি হওয়ার কারণে এ রোডে যানজট আরও বেড়ে যায়। দীর্ঘ যানজটে আটকে আছে সারি সারি গাড়ি। বাড্ডা থেকে মালিবাগ যেতে গাড়ি যেন চলছেই না, সেখানে ১০ মিনিটের রাস্তা পেরোতে সময় লাগছে এক থেকে দেড়ঘণ্টা। নির্ধারিত গন্তব্যে পৌঁছাতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে যাত্রীদের।

রাত সাড়ে ৮টায় দেখা যায়, যানজটের কারণে অনেকেই গাড়ি (বাস) থেকে নেমে হেঁটেই নিজ নিজ গন্তব্যে রওনা হয়েছেন। তবে, অনেকেই আবার বাসা দূরে হওয়ার বিপাকে পড়েছেন। বেশি বিপাকে পড়েছেন নারী ও বয়স্করা। কেউ কেউ আবার বৃষ্টিতে ভিজে রওনা হয়েছেন।

দেখা যায়, সংস্কার কাজের জন্য রাস্তা কাটা, যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং করা, অনেক জায়গায় আবার অত্যন্ত সরু গলি হওয়ায় প্রাইভেটকার ও ছোট গাড়ি ইউটার্ন নিতে পারছে না, এ কারণেও যানজট বেড়ে যাচ্ছে।

রাজিব নামে এক বাস কন্ট্রাক্টর জাগো নিউজকে বলেন, ‘মালিবাগ ফ্লাইওভারে ওঠার আগে প্রতিদিনই এমন যানজট থাকে। ১০ মিনিটের রাস্তা পেরোতে এক ঘণ্টা গেলে যায়।'

নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক যাত্রী বলেন, 'বাড্ডা থেকে গুলিস্তান যাওয়ার জন্য বাসে উঠেছি ৭টার কিছু পর। গুলিস্তান যেতে সময় লাগে ৪০ থেকে ৪৫মিনিট। অথচ এক ঘণ্টার বেশি সময় লাগল মালিবাগ আসতেই।’

আরএসএম/এমএএইচ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]