প্রধানমন্ত্রীর জীবনী তুলে ধরতে বিশেষ চিত্র প্রদর্শনী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:২২ এএম, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিনে তিনদিনের বিশেষ চিত্র প্রদর্শনী সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর একটি হোটেলে সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান ড. চৌধুরী নাফিজ সরাফাত।

‌‘বাংলাদেশ: উন্নয়নের ১ যুগ’ শিরোনামের এ প্রদর্শনী শুরু হয় রোববার। সরকারপ্রধান হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এক যুগের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড, বৈশ্বিক অঙ্গনে নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ এবং গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার আলোকচিত্র নিয়ে সাজানো হয় প্রদর্শনী। শেখ হাসিনার জীবনের বিভিন্ন মুহূর্তের দুর্লভ ছবিও ছিল আয়োজনে।

সমাপনী অনুষ্ঠানে সালমান এফ রহমান বলেন, ছবি থেকেই কিন্তু আমরা ইতিহাস বুঝতে পারি। আমি অনুরোধ করব এই প্রদর্শনীকে এখানে সীমাবদ্ধ না রেখে এটাকে ট্রাভেলিং এক্সিবিশন হিসেবে সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে দিতে।

শেখ হাসিনার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, স্বাধীনতার আগে তার যখন বিয়ে হয়ে গেল, আমরা সবাই ধরে নিয়েছি তিনি (শেখ হাসিনা) নরমাল হাউসওয়াইফের লাইফ লিড করবেন। বিয়ে হয়ে গেছে, একাত্তরে জয়ের জন্ম হয়ে গেছে। স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু দেশটাকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন, তার সঙ্গে শেখ কামাল ছিলেন, জামাল ছিলেন। বঙ্গবন্ধুর উত্তরাধিকার হবেন কামাল, জামাল। আমরা কোনো দিনও ভাবিনি আমাদের এখনকার প্রধানমন্ত্রীকে দায়িত্বটা নিতে হবে।

১৯৯৬ সালে শেখ হাসিনা রাষ্ট্রক্ষমতায় আসার পর ষড়যন্ত্র শুরু হয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ২০০১ সালে ষড়যন্ত্র আর ২০০৭ সালের সেনা-সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় কারাজীবন শেষ করে তিনি (শেখ হাসিনা) দেশকে বদলে দিয়েছেন।

অনুষ্ঠানে ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমানও বক্তব্য দেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে চিত্র প্রদর্শনী নতুন প্রজন্মের সামনে অজানা অনেক তথ্য তুলে ধরেছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

এমএইচএম/এমআরএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]