সরকারি অর্থায়নে বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস মুছে ফেলার চেষ্টা হয়েছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১৬ পিএম, ০৭ অক্টোবর ২০২১

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শুধু মানুষের সঙ্গে নয়, তিনি দেশের প্রতিটি গাছপালা, ঘাস ও মাটির সঙ্গেও মিশে আছেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সপরিবারে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর আমাদের এমন সময় এসেছিল যখন সরকারি অর্থায়নে তার ইতিহাস মুছে ফেলার প্রচেষ্টা চলছিল।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় লিভারেল আটর্স অব বাংলাদেশ (ইউল্যাব) এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন আইনমন্ত্রী। ইউল্যাবের নতুন সংযোজন ‘ইউল্যাব প্রেস’ এর যাত্রা শুরু ও বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিভিন্ন লেখকদের সংকলন ‘স্মরণে শেখ মুজিবঃ সহশ্রাব্দের শ্রেষ্ঠ বাঙালি স্বরক গ্রন্থ’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

মন্ত্রী বলেন, আজকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের কারাগারের রোজনামচা উপহার দিয়েছেন। ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ প্রকাশ হতো না, আর আমরা তাকে সেভাবে জানতামও না। আমরা সেটা জেনে সমৃদ্ধ হয়েছি এবং সেই কারণেই কিন্তু আজকে আমরা এরকম বইয়ের প্রকাশনা দেখছি।

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ১৩ জন লেখকের লেখা সংকলিত করে ‘স্মরণে শেখ মুজিব’ প্রকাশ করা হয়েছে। বইটি সম্পাদনা করেছেন ইউল্যাব বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য এবং জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম। বইটি ইংরেজি এবং বাংলা ভাষায় প্রকাশিত হয়েছে।

ইউল্যাবের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক সামসাদ মর্তুজা বলেন, গত দুই বছরের চেষ্টায় আমাদের আজকের এ প্রয়াস। বইটি যাকে নিয়ে লেখা তিনি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি। আমাদের জন্য তিনি স্বাধীন রাষ্ট্রের স্থপতি। আমাদের সহকর্মীরা বঙ্গবন্ধুকে বর্ণনা করেছেন তাদের নিজস্ব দৃষ্টি দিয়ে। এখন ‘ইউল্যাব প্রেস’ থেকেই আমাদের সব প্রকাশনা বের হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেখ মুজিবুর রহমান জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন বাস্তবায়ন কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ড. কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী, সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউল্যাব বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য ও সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার মিলান কুমার ভট্টাচার্য, রেজিস্ট্রার লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) ফয়জুল ইসলাম, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান, শিকক্ষ, প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীরা।

এসএম/এমএএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]