‘কুমিল্লার ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত খুঁজে বের করা হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:২৮ পিএম, ১৯ অক্টোবর ২০২১

কুমিল্লায় সংঘটিত হামলার ঘটনায় খুব দ্রুত জড়িতদের খুঁজে বের করা (ফাইন্ড আউট) হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক পরবর্তী ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী ও সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীরা বৈঠকে যোগ দেন।

কুমিল্লার ঘটনার বিষয়ে বৈঠকে কোনো আলোচনা হয়েছি কি না, জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিয়মিত ব্রিফ করছেন, সেখানে আমাদের ইন্টেলিজেন্সও কাজ করছে। গতকাল রাতেও আমরা বসছিলাম। নিশ্চয়ই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহেব আজকে ব্রিফ করবেন। সেজন্য আমি আর এটা নিয়ে বলছি না। কুমিল্লার বিষয়ে আমার ধারণা যে খুব কুইকলি একটা ফাইন্ড আউট হবে।’

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অধীনে জেলা-উপজেলা প্রশাসন কাজ করে, এখানে কোনো ঘাটতি আছে কি না, জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘আজকে কেবিনেট মিটিংয়ে পরিষ্কার করে দেওয়া হয়েছে যে, এটা আগেই বলে দেওয়া হয়েছে হোম মিনিস্ট্রিকে, ইনস্ট্যান্ট অ্যাকশনে যেতে হবে। যারা এর সঙ্গে জড়িত আছে, তাদের অবশ্যই ধরতে হবে। পাশাপাশি জনগণকে একটু ধৈর্য ধরতে হবে, রিঅ্যাকশন করা যাবে না।’

তিনি বলেন, ‘আমার কোরআনের যদি কেউ অবমাননা করে, কোরআন আমাকে অথরিটি দেয়নি যে ঘরবাড়ি ভাঙবো, সেটা ঠিক না। এটা অপরাধ। ধর্ম নিয়ে অবমাননা করে তাহলে প্রতিবাদ করতে পারি, সরকারের কাছে দাবি করতে পারি যে ধরে শাস্তি প্রদান করতে হবে। কিন্তু ধ্বংসাত্মক কাজ করবো, এটা সম্পূর্ণ আন-এক্সসেপ্টেবল, এটা ঠিক না। ইসলামে যেটা সবচেয়ে বড় অপরাধ ফিতনা।’

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘আজকে এটাই বলা হয়েছে যে এটা অলরেডি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নির্দেশনা দিয়ে দেওয়া হয়েছে, ইনস্ট্যান্ট অ্যাকশন। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব, যারা এগুলোর সূত্রপাত করলো তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন নেবে। পাশাপাশি ধর্মীয় এবং রাজনৈতিক ব্যক্তিদের বলা হয়েছে, ছোটখাট টুইস্টিং কেউ করলেই যে এভাবে রিঅ্যাকশন করতে হবে, এটা করা যাবে না।’

ফেসবুক বন্ধের বিষয়ে কোন আলোচনা হয়েছে কিনা- জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘না।’

আরএমএম/এমএইচআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]