মন্দিরে হামলা ‘গভীর ষড়যন্ত্র’, শাহবাগে সমাবেশে বক্তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৪০ পিএম, ১৯ অক্টোবর ২০২১

দুর্গাপূজা ঘিরে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ওপর হামলা-নির্যাতনকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও গভীর ষড়যন্ত্র বলে অভিযোগ করেছেন দেশের কবি-সাহিত্যিক, শিল্পী ও সাংবাদিক সমাজ।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬টায় রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ওপর হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে কবি, সাহিত্যিক, শিল্পী ও সাংবাদিকদের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা এ কথা বলেন।

সমাবেশে বক্তারা কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পূজামণ্ডপ, বাড়িঘর, দোকানপাটে সন্ত্রাসী হামলা, ভাঙচুরের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে অপরাধীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবি জানান।

c.jpg

বক্তারা বলেন, কুমিল্লার এক পূজামণ্ডপে কোরআন শরিফ অবমাননা করা হয়েছে, এমন খবর ছড়িয়ে যেভাবে পূজামণ্ডপে হামলা চালিয়ে প্রতিমা ভাঙচুর করা হয়েছে, তা গভীর ষড়যন্ত্রেরই অংশ। এরই ধারাবাহিকতায় চাঁদপুর, নোয়াখালী, রংপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মন্দিরে ও সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘরে হামলা-ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে।

তারা বলেন, সরকারের বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে বলে আমাদের কাছে প্রতীয়মান হয়েছে। আমরা দেখেছি, অতীতেও উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ফেসবুকে গুজব ছড়িয়ে হিন্দু ও বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ওপর হামলা হয়েছে, যার একটিরও সঠিক তদন্ত হয়নি। অপরাধীদের বিচারের আওতায়ও আনা হয়নি।

বক্তারা আরও বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। একাত্তরে হিন্দু-মুসলিম-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান সব ধর্ম-সম্প্রদায়ের মানুষ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছে। কিন্তু স্বাধীনতা-পরবর্তী গত পঞ্চাশ বছরে প্রতিটি সরকার সাম্প্রদায়িক শক্তির সঙ্গে আঁতাত করে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য নির্লজ্জ প্রতিযোগিতায় মেতেছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বিসর্জন দিয়েছে।

এমআইএস/এমকেআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]