‘বিশ্বের সবচেয়ে জীবিত সত্তার নাম হযরত মুহাম্মদ (সা.)’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:১৯ পিএম, ২০ অক্টোবর ২০২১

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা বলেছেন, বিশ্বের সবচেয়ে জীবিত সত্তার নাম মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)। দীর্ঘদিন জৈবিক সত্তায় বেঁচে থাকার চেয়ে মানবিক গুণে মানব মনে বেঁচে থাকা বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপন উপলক্ষে বুধবার (২০ অক্টোবর) বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে আয়োজিত এক আলোচনাসভা ও মিলাদ মাহফিলে প্রধান আলোচক হিসেবে এ কথা বলেন তিনি। ‘ইসলামে সাম্য ও সম্প্রীতি’ শীর্ষক এ আলোচনাসভা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে জাতীয় প্রেস ক্লাব।

আলোচনাসভায় মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর জীবনের নানা দিক তুলে ধরে কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা বলেন, হযরত মুহাম্মদ (সা.) এতো প্রিয় যাকে ভুলা যায় না। বিশ্বের সবচেয়ে জীবিত সত্তার নাম হযরত মুহাম্মদ (সা.)। জৈবিক বেঁচে থাকার চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কর্মের মাধ্যমে বেঁচে থাকা। আমি শুনেছি, বর্তমানে এক নারী নাকি ২০৫ বছর বেঁচে আছেন। জৈবিকভাবে বেঁচে থেকে হয়তো বিশ্বকে দেখা যায়। কিন্তু নিজের সত্তাকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য কর্মগুণটা বেশি জরুরি। জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত থেকে অনন্তকালের যাত্রা করা যায়। প্রতি মুহূর্ত থেকে অনন্তের দিকেই তিনি (মুহাম্মদ) গিয়েছেন।

এসময় সাম্যের বিষয় তুলে ধরে তিনি বলেন, যে ধর্মটি বেশি বিভক্ত হয়েছে তা হলো ইসলাম। অথচ ইসলাম সাম্যের ধর্ম। জাতি রাষ্ট্র গঠনের কথা হযরত মুহাম্মদ (সা.) বলেছিলেন। মদিনা সনদ সেই ধর্মীয় ও রাজনৈতিক সাম্য তৈরি করা হয়েছিল। একটা ন্যায় তাত্ত্বিক রাষ্ট্র গঠন করেছিলেন। তাই যে বৈপরীত্য রয়েছে তা দূর করতে হলে মদিনা সনদ ও হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর জীবনী থেকে শিক্ষা নিতে হবে। ইসলামে সেই সৌন্দর্য রয়েছে।

এসময় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান, সাবেক সভাপতি শওকত মাহমুদ, ইকবাল সোবহান চৌধুরী, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি কবি হাসান হাফিজ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরএসএম/এমএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]