সংবিধানের অন্যতম মূলনীতি ‘ধর্মনিরপেক্ষতা’: প্রতিমন্ত্রী

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৫:৪১ পিএম, ২৪ অক্টোবর ২০২১

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেছেন, আমাদের সংবিধানের অন্যতম মূলনীতি হলো ‘ধর্মনিরপেক্ষতা’, যা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের ভিত্তি।

রোববার (২৪ অক্টোবর) সকালে ইসলামপুর উপজেলার গোয়ালেরচর হাইস্কুল মাঠে এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন এবং স্কুল ভবন উপলক্ষে এই আলোচনা সভা হয়।

দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে যে কোনো মূল্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা করতে হবে বলে উল্লেখ করেন প্রতিমন্ত্রী।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের গত ১২ বছরে বাংলাদেশ উন্নয়ন অভিযাত্রায় ঈর্ষণীয় সাফল্য অর্জন করেছে। শিক্ষা, তথ্যপ্রযুক্তি, যোগাযোগ, বিদ্যুৎ, রেল, সেতুসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক পরিবর্তন হয়েছে। প্রতিটি ক্ষেত্রের উন্নয়ন আজ দৃশ্যমান। বিশ্বনেতৃত্ব আজ বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক বিচারের ব্যবস্থা করছেন বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

তিনি বলেন, অন্যান্য সব সেক্টরের ন্যায় প্রতিটি ধর্মীয় সম্প্রদায়ের কল্যাণে সরকার আলাদাভাবে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। দেশের প্রতিটি উপজেলা ও জেলায় একটি করে ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ করছে। বিশেষ প্রকল্প গ্রহণ করে দেশের বিভিন্ন জেলার হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির-শ্মশান নির্মাণ ও সংস্কার করা হচ্ছে। একইভাবে সরকার প্যাগোডা ও গির্জার অনুকূলে পর্যাপ্ত অনুদান প্রদান করে এসব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন করে যাচ্ছে।

গোয়ালেরচর হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুর রেজ্জাকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- ইসলামপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট এস এম জামাল আব্দুন নাছের চৌধুরী, ইসলামপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল খালেক আকন্দ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোজিনা আক্তার চায়না, গোয়ালেরচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ, ইসলামপুর উপজেলা শাখা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম প্রমুখ।

এমইউ/জেডএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]