২৩ দেশের প্রতিনিধি নিয়ে ঢাকায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুশীলন শুরু

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:২৩ পিএম, ২৬ অক্টোবর ২০২১

ঢাকায় বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ উদ্যোগে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার ওপর অনুশীলন শুরু হয়েছে। ঢাকার আর্মি গলফ ক্লাবে মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী ও মার্কিন সেনাবাহিনীর যৌথ উদ্যোগে ভূমিকম্প পরবর্তী অনুসন্ধান ও উদ্ধার বিষয়ক তিন দিনব্যাপী অনুশীলন শুরু হয়েছে।

ডিজাস্টার রেসপন্স এক্সারসাইজ অ্যান্ড একচেঞ্জ বাংলাদেশ-২০২১ শীর্ষক এ অনুশীলনের উদ্বোধন করেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান।

এ অনুশীলনের মূল উদ্দেশ্য হলো- ভূমিকম্প তথা সব ধরনের দুর্যোগ ব্যবস্থপনায় আন্তর্জাতিক পদ্ধতির উপর সম্যক ধারণা লাভ, দুর্যোগ মোকাবিলায় সমন্বিত প্রয়াস নিশ্চিত করতে অংশীজনদের মধ্যে সমন্বয় বৃদ্ধি, ভূমিকম্প মোকাবিলায় অনুসন্ধান ও উদ্ধার, যোগাযোগ, মেডিকেল শেল্টার ও ত্রাণ কার্যক্রমের আলোকে দুর্যোগ ব্যবস্থপনায় গাইডলাইন চূড়ান্তকরণ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার, দুর্যোগ ব্যবস্থপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব, প্রশান্ত মহাসাগরীয় মার্কিন সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল রিগাইনাল্ড জিএ নিল বক্তব্য দেন ।

jagonews24

এ অনুশীলন ২০১০ সাল থেকে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এ বছর কোভিড -১৯ প্রটোকল অনুসরণ করে অনুশীলনটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। অনুশীলনে ২৩ দেশের ১৪৭টি সংস্থার ৩ শতাধিক প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করছেন।

দেশগুলো হলো- বাংলাদেশ, নেপাল, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা, জাপান, ভূটান, মালদ্বীপ, শ্রীলংকা, অস্ট্রেলিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, তুরস্ক, ফিজি, মঙ্গোলিয়া, লাওস, কেনিয়া, জার্মানি, নিউজিল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, নাইজেরিয়া ও চীন।

অংশগ্রহণকারীরা বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, সংস্থা ও এনজিওর প্রতিনিধিত্ব করছেন। এছাড়া দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত বিষয়ে অধ্যয়নরত বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও স্বেচ্ছাসেবকরা এ অনুশীলনে অংশ নিচ্ছেন।

এ অনুশীলন এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ভূমিকম্প দুর্যোগ মোকাবিলা সংক্রান্ত বৃহত্তম অনুশীলন।

এ বছর কোভিড প্রটোকল নিশ্চিতের জন্য অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা সীমিত করা হয়েছে। এছাড়া এবারই প্রথম ফিজিক্যাল এবং ভার্চুয়াল পার্টিসিপেশনের মাধ্যমে দেশ এবং দেশের বাইরে থেকে এই অনুশীলনে অংশগ্রহণের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সামরিক ও অসামরিক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, অংশগ্রহণকারী দেশসমূহের সামরিক উপদেষ্টা ও কূটনীতিকরা উপস্থিত ছিলেন।

এমওএস/এমএইচআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]