পাটুরিয়ায় ফেরিডুবি: নৌ-মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:০৪ পিএম, ২৭ অক্টোবর ২০২১

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ফেরিঘাটে নোঙর করার পর হেলে পড়ে রো রো ফেরি শাহ আমানত। এ সময় দু-তিনটি গাড়ি নামতে পারলেও বাকিগুলো পানিতে পড়ে যায়। ওই দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে ও ভবিষ্যতে এ ধরনের দুর্ঘটনা রোধকল্পে সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়।

নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) সুলতান আব্দুল হামিদকে কমিটির আহ্বায়ক এবং বিআইডব্লিউটিসির পরিচালক (কারিগরি) মো. রাশেদুল ইসলামকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে নৌ-পরিবহন সচিবের কাছে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম খানের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন বিআইডব্লিউটিএর পরিচালক (আইসিটি) রকিবুল ইসলাম তালুকদার, নৌ-পরিবহন অধিদফতরের নটিক্যাল সার্ভেয়ার অ্যান্ড এক্সামিনার ক্যাপ্টেন সাঈদ আহমেদ, মানিকগঞ্জ জেলার স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক, বুয়েটের নেভাল আর্কিটেকচার অ্যান্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের সহযোগী অধ্যাপক ড. জুবায়ের ইবনে আউয়াল এবং নৌ-পুলিশের ফরিদপুর অঞ্চলের পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দিন।

নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় আজ (বুধবার) এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে।

এর আগে বুধবার (২৭ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের ঢাকা বিভাগের উপ-পরিচালক দিনমণি শর্মা জাগো নিউজকে জানান, ব্যালান্স ট্যাংক পূর্ণ না থাকায় নদীতে হেলে পড়ে ‘আমানত শাহ’ নামের রো রো ফেরিটি। এতে ফেরিতে থাকা ১৪টি কাভার্ডভ্যান, ১০-১২টি মোটরসাইকেল পানিতে পড়ে যায়।

আইএইচআর/কেএসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]