বাসেত মজুমদার সুবিচার নিশ্চিতে কাজ করে গেছেন: তাপস

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৫২ পিএম, ২৭ অক্টোবর ২০২১

বিচারপ্রার্থীর সুবিচার নিশ্চিত করাই ছিল আব্দুল বাসেত মজুমদারের জীবনের ব্রত বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য, সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল বাসেত মজুমদারের জানাজা শেষে এক প্রতিক্রিয়ায় ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এ মন্তব্য করেন।

মেয়র শেখ তাপস বলেন, ‘প্রয়াত আইনজীবী আব্দুল বাসেত মজুমদার নবীন-প্রবীণ সব আইনজীবীর বন্ধু ছিলেন। তিনি ছিলেন গরিবের আইনজীবী। তার কর্মজীবনে কখনোই অর্থ বিবেচ্য বিষয় ছিল না। একজন বিচারপ্রার্থী কীভাবে সুবিচার পেতে পারেন, সেটাই তার জীবনের ব্রত ছিল। সেভাবেই তিনি বিচারপ্রার্থীদের জন্য নিবেদিতপ্রাণ হয়ে কাজ করেছেন।’

jagonews24

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে যেসব বিচারপ্রার্থী তার সেবা নিয়েছেন, আজ তারা শোকাহত ও মর্মাহত। আমরা আইনজীবীরা অত্যন্ত শোকাহত। আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে নিবেদন করবো, এ বরেণ্য আইনজীবীর জন্য যেন একদিন শোক দিবস পালন করা হয়।’

ডিএসসিসি মেয়র আরও বলেন, আব্দুল বাসেত মজুমদার শুধু সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি-সম্পাদক, বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্যই ছিলেন না, তিনি সর্বোপরি একজন নিবেদিতপ্রাণ মানুষ ও আইনজীবীদের নেতাও ছিলেন।

মেয়র শেখ তাপস এসময় মরহুম আব্দুল বাসেত মজুমদারের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান।

এর আগে মেয়র শেখ তাপস মরহুমের নামাজে জানাজায় অংশগ্রহণ করেন এবং নামাজ পরবর্তী তার মরদেহে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন।

এমএমএ/এএএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]