অ্যাপ ছাড়া চুক্তিভিত্তিক রাইড শেয়ারে কঠোর ব্যবস্থা নেবে বিআরটিএ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:৪৩ এএম, ২৮ অক্টোবর ২০২১

‘রাইড শেয়ারিং সার্ভিস নীতিমালা, ২০১৭’ অমান্য করলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)।

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) ‘রাইড শেয়ারিং সার্ভিসের অ্যাপ ব্যবহার না করে চুক্তিভিত্তিক যাত্রী পরিবহন এবং অতিরিক্ত ভাড়া আদায় সংক্রান্ত’ এক সতর্কীকরণ বিজ্ঞপ্তিতে এ হুঁশিয়ারি দেয় সংস্থাটি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘রাইড শেয়ারিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান, রাইড শেয়ারিং সেবাদানকারী মোটরযান মালিক, চালক এবং সেবাগ্রহণকারীদের অবহিত করা যাচ্ছে যে, অ্যাপভিত্তিক রাইড শেয়ারিং সেবা প্রদান এবং গ্রহণের জন্য সরকার কর্তৃক রাইড শেয়ারিং সার্ভিস নীতিমালা, ২০১৭ প্রবর্তন করা হয়েছে। নীতিমালা অনুযায়ী, বিআরটিএ থেকে রাইড শেয়ারিং অ্যানলিস্টমেন্ট সার্টিফিকেট গ্রহণ করতে হবে। এরপর রাইড শেয়ারিং অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে সংশ্লিষ্ট সেবা প্রদান ও গ্রহণ এবং সুনির্দিষ্ট ভাড়া আদায় করার শর্ত রয়েছে।’

jagonews24

এতে আরও বলা হয়, ‘সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, কিছু মোটরযান চালক কর্তৃক রাইড শেয়ারিং নীতিমালার শর্তাদি প্রতিপালন না করে চুক্তিভিত্তিক রাইড শেয়ারিং সেবা প্রদান এবং অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে, যা রাইড শেয়ারিং সার্ভিস নীতিমালা, ২০১৭ এর পরিপন্থি। এছাড়াও অ্যাপ ছাড়া চুক্তিভিত্তিতে রাইড শেয়ারিং সেবা গ্রহণ না করার জন্য সেবাগ্রহণকারীদের বিরত থাকতে অনুরোধ করা যাচ্ছে।’

‘এমতাবস্থায়, রাইড শেয়ারিং সার্ভিস নীতিমালা, ২০১৭ এর বিধান লঙ্ঘন করে চুক্তিভিত্তিক মোটরযান পরিচালনাসহ অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করলে সংশ্লিষ্ট রাইড শেয়ারিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান, মোটরযান মালিক, চালক এবং সেবাগ্রহণকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

সংস্থাটি বলছে, চুক্তিভিত্তিক যাত্রী পরিবহন ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায় সংক্রান্ত যেকোনো অভিযোগ বিআরটিএ সদরদপ্তরের রাইড শেয়ারিং শাখার সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) বরাবর জানাতে পারবেন।

এছাড়া ০১৭১৪-৫৫৬৭৭০ ও ০২-৫৫০৪০৭৪৫ নম্বরে কল করেও অভিযোগ জানাতে পারবেন। কেউ চাইলে লিখিত অভিযোগ ইমেইলও করতে পারেন, সেক্ষেত্রে [email protected] ঠিকানায় ইমেইল করতে হবে।

এসইউজে/এএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]