প্রথমবারের মতো বঙ্গবন্ধু শিল্প পুরস্কার পেলো ২৩ প্রতিষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৩৯ পিএম, ২৮ অক্টোবর ২০২১

উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠানকে শিল্পখাতে অবদানের স্বীকৃতি দেওয়া, প্রণোদনা সৃষ্টি ও সৃজনশীলতাকে উৎসাহিত করতে প্রথমবারের মতো ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প পুরস্কার-২০২০’ পেয়েছে ২৩ প্রতিষ্ঠান। সাত ক্যাটাগরিতে তাদের পুরস্কার দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে শিল্প মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প পুরস্কার-২০২০’ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন পুরস্কার তুলে দেন। এর আগে গত জুনে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে মনোনীত প্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রকাশ করে সরকার। সেসময় শিল্প মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গিয়েছিল, সেপ্টেম্বর নাগাদ এ পুরস্কার প্রতিষ্ঠানগুলোর হাতে তুলে দেওয়া হতে পারে। সেই এদিন পুরস্কার দেওয়া হয়।

শিল্পসচিব জাকিয়া সুলতানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার ও এফবিসিসিআই প্রেসিডেন্ট মো. জসিম উদ্দিন। এতে অন্যদের মধ্যে পুরস্কারপ্রাপ্ত শিল্প-উদ্যোক্তারা ও শিল্প মন্ত্রণালয় ও এর অধীন দপ্তর বা সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে শিল্পমন্ত্রী বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর শিল্প পরিকল্পনা ও প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশে শিল্পায়নের যে স্বপ্নযাত্রা শুরু হয়েছিল সেই স্বপ্নের সোনালি পথ ধরে দেশে বহুমুখী শিল্পায়নের ধারা জোরদার ও বেসরকারি খাতে দক্ষতা ও গতিশীলতা বাড়ানোর ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প পুরস্কার প্রবর্তন করা হয়েছে। এ পুরস্কার দেওয়ার লক্ষ্য হচ্ছে- শিল্প উন্নয়নে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদানকে স্মরণ করা। আশা করি, বঙ্গবন্ধুর নামে প্রবর্তিত এ পুরস্কার সৃজনশীল উদ্যোক্তা তৈরি ও শিল্পায়নের বিকাশে সহায়ক হবে।

বৃহস্প্রতিবার (২৮ অক্টোবর) ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে শিল্প মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প পুরস্কার-২০২০’ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিল্পমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শিল্পমন্ত্রী আরও বলেন, কোভিড-১৯ মহামারির ফলে বৈশ্বিক শিল্পায়ন ও অর্থনীতি যেখানে মারাত্মকভাবে বিপর্যস্ত, সেখানে প্রধানমন্ত্রীর সফল নেতৃত্বে বাংলাদেশের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়িয়েছে। বিশ্বনেতৃত্বের কাছে এটি মিরাকল হলেও বাংলাদেশের জন্য এটি প্রতিষ্ঠিত বাস্তবতা। কোনো জাদুকাঠির স্পর্শে নয় বরং, এদেশের মাটি ও মানুষকে নিয়ে দীর্ঘ রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা এই দুঃসময়ে আমাদের অর্থনীতিকে সঠিক পথে পরিচালিত করেছে। ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে শিল্পোন্নত দেশগুলোতে ঋণাত্মক জিডিপি প্রবৃদ্ধি হয়েছে। অথচ বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ছিল ৫ দশমিক ২৪ শতাংশ। আমাদের জিডিপি প্রবৃদ্ধি দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর জিডিপি ও বৈশ্বিক গড় জিডিপি প্রবৃদ্ধির চেয়ে বেশি।

‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প পুরস্কার-২০২০’ পেয়েছে যেসব প্রতিষ্ঠান:

বৃহৎ ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছে চারটি প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে প্রথম স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড ও দ্বিতীয় পুরস্কার পাচ্ছে জজ ভূঞা টেক্সটাইল মিলস। যৌথভাবে তৃতীয় হয়েছে আদুরি অ্যাপারেলস লিমিটেড ও ইউনিভার্সাল জিন্স লিমিটেড।

মাঝারি শিল্প ক্যাটাগরিতে প্রথম পুরস্কার পেয়েছে যৌথভাবে অকো-টেক্স লিমিটেড ও ফরচুন সুজ লিমিটেড। দ্বিতীয় পুরস্কার পাচ্ছে রহিমআফরোজ রিনিউঅ্যাবল এনার্জি লিমিটেড ও তৃতীয় পুরস্কার পাচ্ছে মাধবদী ডাইং ফিনিশিং মিলস লিমিটেড।

jagonews24

ক্ষুদ্রশিল্পের তিনটি প্রতিষ্ঠান যথাক্রমে আমান প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রি, এসআর হ্যান্ডিক্যাফটস ও আলীম ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। অতিক্ষুদ্র বা মাইক্রো ইন্ডাস্ট্রির জন্য পুরস্কার পাচ্ছে মেসার্স কারুকলা, ট্রিম টেক্স বাংলাদেশ ও জনতা ইঞ্জিনিয়ারিং।

হাইটেক শিল্পের জন্য পুরস্কারপ্রাপ্ত তিন প্রতিষ্ঠান হলো- সার্ভিস ইঞ্জিন লিমিটেড, সুপারস্টার ইলেকট্রনিক্স লিমিটেড ও মীর টেলিকম লিমিটেড।

এছাড়াও হস্ত ও কারুশিল্প ক্যাটাগরিতে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে যথাক্রমে- ক্লাসিকাল হ্যান্ডমেড প্রোডাক্ট বিডি, আয়োজন ও সোনারগাঁ নকশি কাঁথা মহিলা উন্নয়ন সংস্থা।

কুটিরশিল্প ক্যাটাগরিতে কুমিল্লা আর্ট অ্যান্ড ক্রাফটস, রংমেলা নারী কল্যাণ সংস্থা ও অগ্রজ পুরস্কার পেয়েছে।

এনএইচ/এআরএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]