ভাড়া নিয়ে বিতণ্ডায় ৪ ছাত্রকে লাঠি দিয়ে পেটালো বাসচালক-সহকারীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:১০ এএম, ১৯ নভেম্বর ২০২১

হাফ ভাড়া নিয়ে বিতর্কের জেরে সরকারি তিতুমীর কলেজের চার শিক্ষার্থীকে মারধর করেছেন বাসচালক ও সহকারীরা। মারধরের শিকার চার শিক্ষার্থী হলেন কলেজের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের নূর সুমন, মিরাজ মিয়া ও শাহিন সরদার, সজ্জাদ।

বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর আগারগাঁওয়ে এই ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, সন্ধ্যায় মিরপুর-গুলিস্তান রুটের সেফটি পরিবহনের একটি বাসে শেওড়াপাড়া থেকে আগারগাঁওয়ে যাওয়ার জন্য ওঠেন ওই চার শিক্ষার্থী। আগারগাঁওয়ে বাসটির চেকারকে হাফ ভাড়া কাটতে বললে তা নিয়ে বাগবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে বাস থামিয়ে কয়েকটি বাসের চালক-সহকারীরা মিলে চারজনকে মারধর করেন।

আহতদের সহপাঠী নয়ন সরকার জানান, বাসের চালক ও সহকারীরা তাদের লাঠি দিয়ে মারধর করেন ও বুকের ওপর উঠে আঘাত করেন। এতে দুজন গুরুতর আহত হন। তাদের শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

আহত নূর সুমন বলেন, ‌‘আগারগাঁওয়ে বাস থামলে চেকারকে হাফ ভাড়া রাখতে বলি। তিনি হাফ ভাড়া নিতে রাজি না হলে আমরা বলি হাফ ভাড়ার বেশি দেবো না। এসময় তাৎক্ষণিক কয়েকজন বাসে উঠে বলেন কে কে স্টুডেন্ট। এই বলেই গায়ে হাত তোলেন। আমরা বাধা দিলে তারা লাঠিসোটা দিয়ে আঘাত করতে থাকেন।

এ বিষয়ে কাফরুল থানার উপ-পরিদর্শক সাজ্জাদ হোসেন বলেন, আমরা ৯৯৯-এ কল পেয়ে ঘটনাস্থলে আসি। তবে ঘটনাস্থলে আসার আগেই তারা সেখান থেকে চলে যায়। আহত শিক্ষার্থীদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। শিক্ষার্থীরা যদি থানায় অভিযোগ করেন তাহলে বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরএসএম/ইএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]