কক্সবাজার বেড়াতে যেতে না দেওয়ায় মায়ের সঙ্গে অভিমান করে আত্মহত্যা

ঢামেক প্রতিবেদক
ঢামেক প্রতিবেদক ঢামেক প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:২১ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০২১
প্রতীকী ছবি

রাজধানীর দক্ষিণখান থানার চালাবন এলাকার একটি বাসায় মায়ের সঙ্গে অভিমান করে মো. রুবায়েত অন্তনু (১৬) নামের এক এসএসসি শিক্ষার্থী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাত ১০টার দিকে সে আত্মহত্যা করে। পরে অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত সাড়ে ১২টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

দক্ষিণখান থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) কমল কুমার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আমরা পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছি, নিহত অন্তনুর মানসিক সমস্যা ছিল। সে অল্প কথায় রেগে যেত। প্রায় সময়ই দরজা বন্ধ করে রুমের মধ্যে একাকী থাকতো। গতকাল রাত ১০টা থেকে সাড়ে ১০টার দিকে রুমে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

পরে আমাদের খবর দেওয়া হলে আমরা গিয়ে তাকে উদ্ধার করে মেডিকেলে নিয়ে আসি। এরপর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে স্বজনদের কাছে ফেরত দেওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

নিহতের চাচা জকিরুল ইসলাম জানান, আমার ভাতিজা মাইলস্টোন স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। তার মায়ের কাছে আবদার করেছিল, পরীক্ষা শেষে কক্সবাজার বেড়াতে যাবে। কিন্তু অন্তনুর মা এবার না গিয়ে পরে যাওয়ার কথা বলেছিলেন। এ নিয়ে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে ঘরের দরজা লাগিয়ে সে আত্মহত্যা করে।

তিনি আরও জানান, তাদের গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার বাইতলা গ্রামে। এক ভাই ও এক বোনের মধ্যে সে ছিল সবার ছোট। তার বাবা হংকং প্রবাসী।

এআরএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]