চট্টগ্রামে কারখানার আগুন নেভানোর পর ফায়ার সার্ভিস কর্মীর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:১৮ পিএম, ২৬ নভেম্বর ২০২১

চট্টগ্রাম নগরের সাগরিকা স্টেডিয়াম সংলগ্ন এলাকায় আগুন নির্বাপণের পর অসুস্থ হয়ে মো. মিলন নামে এক ফায়ার সার্ভিস কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। তবে আগুন নির্বাপণের কারণে তার মৃত্যু হয়নি বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

মিলনের গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী জেলায়। তিনি চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিসে ফায়ার ফাইটার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

jagonews24

বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক ফরিদ আহমেদ জাগো নিউজকে বলেন, মিলন গতকাল থেকে অসুস্থতা-বোধ করছিলেন। তার হার্টের অসুখ হয়েছে, সেটি তিনি ভালো করে বুঝতে পারেননি। আজ (বৃহস্পতিবার) বিটাক বাজার এলাকায় আগুন নেভানো শেষ পর্যায়ে তিনি বুকে ব্যথা অনুভব করেন। এরপর তাকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে দুপুর আড়াইটার দিকে তার মৃত্যু হয়। আগ্রাবাদ এলাকায় জানাজা শেষে তার মরদেহ নোয়াখালীতে পাঠানো হবে।

আগুন নেভাতে গিয়ে তার মৃত্যু হয়েছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, অগ্নিকাণ্ডের কারণে তার কোনো ক্ষতি হয়নি। হার্টের অসুস্থতাজনিত কারণে তার মৃত্যু হয়েছে।

এর আগে, শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সাগরিকা স্টেডিয়ামের পাশে বিটাক বাজার এলাকায় হোমল্যান্ড কেমিক্যাল কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এরপর ফায়ার সার্ভিসের তিন ইউনিটের ১৩ গাড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটের দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনাস্থলের পাশে সাগরিকা স্টেডিয়ামে তখন বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যে টেস্ট ম্যাচ চলছিল। সেখানের গ্যালারি থেকে দর্শকরাও ধোঁয়ার কুণ্ডলী দেখতে পান।

মিজানুর রহমান/এআরএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]