ভাড়া নিয়ে বাগবিতণ্ডা: শিক্ষককে বাস থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ১১:১৮ পিএম, ২৭ নভেম্বর ২০২১
সংগৃহীত

চট্টগ্রাম মহানগরে ভাড়া নিয়ে বাগবিতণ্ডার জেরে রহমত উল্লাহ নামে এক স্কুলশিক্ষককে বাস থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আহত ওই শিক্ষক মহানগরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ভুক্তভোগী রহমত উল্লাহ নগরের পাঁচলাইশ থানা এলাকার হাবিবউল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। বর্তমানে তিনি সদরঘাট এলাকার প্রাইমারি ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে (পিটিআই) প্রশিক্ষণে রয়েছেন। বায়েজিদ বোস্তামী থানা এলাকার বাসা থেকে পিটিআইয়ে তিনি প্রতিদিনই আসা-যাওয়া করেন।

রহমত উল্লাহর সহকর্মীর অভিযোগ, শনিবার সকালে তিনি অক্সিজেন মোড় থেকে পিটিআইয়ে যেতে বাসে ওঠেন। বাসটির হেলপার বিভিন্ন যাত্রীর কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করতে থাকলে রহমত এর প্রতিবাদ করেন। এতে করে ওই বাসের চালক-হেলপার ক্ষিপ্ত হন। একপর্যায়ে রহমত নিউমার্কেট এলাকায় নামতে চাইলে তাকে আরও কিছুদূর সামনে নিয়ে ধাক্কা দেয় হেলপার। এরপর তার পায়ের ওপর দিয়ে গাড়িটির চাকা চলে যায়। মারাত্মক আহত অবস্থায় রহমত নগরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

রহমতের সহকর্মী মো. মিজান জাগো নিউজকে বলেন, ‘হেলপারের ধাক্কায় নিচে পড়ে রহমতের হাত-পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মকভাবে জখম হয়। ভাড়া নিয়ে প্রতিবাদ করায় বাসের চালক-হেলপার এমন ঘটনা ঘটিয়েছে।’

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নেজাম উদ্দিন জাগো নিউজকে বলেন, ‘ঘটনাটি শোনার পর ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। গাড়িটি জব্দ করা হলে চালক-হেলপার পলাতক রয়েছেন। ভুক্তভোগীর পরিবারের লোকজন থানায় এসেছেন। তাদের অভিযোগ সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।’

গত ১৩ নভেম্বর ভাড়া নিয়ে তর্কের জেরে একই থানার লালখান বাজার এলাকায় আবদুল হামিদ নামে এক যাত্রীকে ফেলে দেয় বাসের চালক-হেলপার। ওই ঘটনার পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে গাড়িচালক মো. আশরাফ ও হেলপার মো. হানিফকে গ্রেফতার করে।

মিজানুর রহমান/এএএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]