ব্রিতে হবে বিশ্বমানের কৃষি প্রযুক্তি কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:১৫ পিএম, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১

বিশ্বমানের ‘বঙ্গবন্ধু-পিয়েরে ট্রুডো কৃষি প্রযুক্তি কেন্দ্র’ স্থাপন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ব্রি)। কানাডার ইউনিভার্সিটি অব সাসকাচোয়ানের গ্লোবাল ইনস্টিটিউট ফর ফুড সিকিউরিটির সঙ্গে যৌথভাবে এ প্রকল্প সম্পন্ন করবে ব্রি।

এর অংশ হিসেবে গ্লোবাল ইনস্টিটিউট ফর ফুড সিকিউরিটির উচ্চ পর্যায়ের এক প্রতিনিধি দল বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) ব্রি পরিদর্শন করেছে। ব্রির পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

পরিদর্শন উপলক্ষে জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা এবং দেশের খাদ্যনিরাপত্তা টেকসই করতে নার্সভুক্ত ইনস্টিটিউটের সক্ষমতা বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন বিষয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় ইউনিভার্সিটি অব সাসকাচোয়ানের অ্যান্ড্রু শার্প রিসার্চ সায়েন্টিস্ট বঙ্গবন্ধু চেয়ার ইন ফুড সিকিউরিটি পঙ্কজ ভৌমিক, ইউনিভার্সিটি অব সাসকাচোয়ানের ইন্টারন্যাশনাল প্রোগ্রাম ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার হাসান পারভেজ আহমেদ, ব্রির মহাপরিচালক ড. মো. শাহজাহান কবীর, পরিচালক (প্রশাসন) ড. মো. আবু বকর ছিদ্দিক, পরিচালক (গবেষণা) ড. মো. খালেকুজ্জামান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এই উদ্যোগটি বাংলাদেশের দরিদ্র, প্রান্তিক এবং সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীর জন্য খাদ্য নিরাপত্তাহীনতার কাঠামোগত কারণগুলি চিহ্নিত করবে। এছাড়া সেসব মোকাবিলা করে গুরুত্বপূর্ণ কারণগুলি যেমন জলবায়ু-সহনশীল জাতের উন্নয়ন, মাটির গুণাগুণ এবং স্বাস্থ্য, ভূ-গর্ভস্থ পানি ব্যবস্থাপনা, খাদ্যের অপচয় কমানো এবং বাজারজাতযোগ্য খাদ্যপণ্যের বিকাশে কাজ করবে।

এ বিষয় ব্রির মহাপরিচালক ড. মো. শাহজাহান কবীর বলেন, ব্রিতে এ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠিত হলে টেকসই খাদ্য নিরাপত্তা সংক্রান্ত গবেষণা ও উন্নয়ন, শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও প্রযুক্তি হস্তান্তর কর্মসূচিতে নতুন মাত্রা যোগ হবে। ধান বাংলাদেশের প্রধান ফসল। চালের নিরাপত্তা এখানে খাদ্য নিরাপত্তার সমার্থক। বঙ্গবন্ধু-পিয়েরে ইলিয়ট ট্রুডো কৃষি প্রযুক্তি কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার জন্য আমরা ব্রিতে প্রয়োজনীয় জায়গা ও সুবিধাদি দিতে প্রস্তুত আছি।

ড. শাহজাহান কবীর যোগ করেন, যদি আমরা এর কৌশলগত লক্ষ্য এবং মিশন বিবেচনা করি যেমন- জাতীয় কৃষি গবেষণার সক্ষমতা বৃদ্ধি করা, মানবসম্পদ উন্নয়ন, জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন, জলবায়ু চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা এবং অংশীদারিত্ব, সমস্ত প্রকল্পে জলবায়ু স্থিতিস্থাপকতা এবং স্থায়িত্বকে একীভূত করা এবং দরিদ্র ও প্রান্তিক কৃষক এবং নারীদের সমর্থন করে এমন কার্যক্রম ব্রির কৌশলগত দিকগুলির সঙ্গে মিলে যায়।

এনএইচ/কেএসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]