শ্যামপুরের আগুনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি, কোটি টাকার মালামাল উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:০০ পিএম, ১৬ জানুয়ারি ২০২২

রাজধানীর পোস্তগোলার শ্যামপুর লাল মসজিদের পাশে আলম গার্মেন্টসে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। বৈদ্যুতিক গোলোযোগকে আগুন লাগার কারণ হিসেবে প্রাথমিকভাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। অগ্নিকাণ্ডে আনুমানিক ৩০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। প্রায় ১ কোটি টাকার মালামাল উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের পক্ষ থেকে জাগো নিউজকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, শ্যামপুরে একটি সাততলা ভবনের চতুর্থ তলায় শনিবার (১৫ জানুয়ারি) দিবাগত রাত পৌনে ১২টার দিকে আগুনের সূত্রপাত হয়। তবে গার্মেন্টসে আগুন লাগার কারণে তা নিয়ন্ত্রণে বেগ পেতে হয় দমকল বাহিনীর কর্মীদের।

আগুন নিয়ন্ত্রণে প্রথমে ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিট ও পরে আরও চারটি ইউনিট যোগ দেয়। আড়াই ঘণ্টারও বেশি সময় পর রাত আড়াইটার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিস, অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও ভলান্টিয়ারের ৯৮ জন সদস্য আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করেন।

রাতেই ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মিডিয়া সেলের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শাহজাহান শিকদার আগুন নিয়ন্ত্রণের বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সাততলা ভবনের চতুর্থ তলায় গার্মেন্টসটির পোশাক তৈরির সর্বশেষ ধাপের কাজ চলতো। গার্মেন্টসটিতে শিপমেন্টের আগে একাধিক শিফটে কাজ হতো। তবে আগুন লাগার সময় সেখানে কাজ চলছিল কি না, তা জানা যায়নি। আগুন লাগার পর চতুর্থ তলা থেকে ছয়-সাতজনকে নিরাপদে বের করে আনেন ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা।

অগ্নিনির্বাপণে নেতৃত্ব দেন ঢাকার সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল হালিম, সহকারী পরিচালক (অপারেশন) মানিকুজ্জামান এবং উপ-সহকারী পরিচালক হাফিজুর রহমান।

এমএইচএম/টিটি/এমকেআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]