গুলশান-বনানী থেকে বিয়ার-মদসহ আটক ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:২৭ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২২

রাজধানীর গুলশান ও বনানী এলাকায় পৃথক অভিযান পরিচালনা করে বিয়ার ও মদসহ তিন কারবারিকে আটক ও পরিবহনে ব্যবহৃত দুটি প্রাইভেটকার জব্দ করেছে এলিট ফোর্স র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

র‌্যাব বলছে, আটকরা পেশায় প্রাইভেটকারের চালক হলেও তারা মাদককারবারির কাছ থেকে সংগ্রহ করে রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় সরবরাহ করে আসছিলেন।

র‌্যাব-১ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া অফিসার) সহকারী পুলিশ সুপার নোমান আহমদ এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, প্রাইভেটকারে বিদেশি মদ ও বিয়ারসহ রাজধানীর অভিজাত গুলশান ও বনানী এলাকায় কয়েকজন মাদককারবারি অবস্থান করছে জানতে পেরে অভিযানে যায় র‌্যাব-১ এর একটি দল।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় গুলশান থানাধীন শুটিং ক্লাব, পানির পাম্পের সামনে অভিযান পরিচালনা করে একজনকে আটক করা হয়। তিনি মাদককারবারি। নাম জাহিদ হাসান হৃদয় (২৭)। বাড়ি কুমিল্লায়। আটককালে তার কাছ থেকে ১০৬৯ ক্যান বিয়ার, ২৪ বোতল বিদেশি মদ, একটি প্রাইভেটকার ও দুটি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

jagonews24

র‌্যাব-১ এর অপর একটি অভিযানে একই দিন বিকেলে বনানী থানাধীন মহাখালী টিবি গেট সংলগ্ন ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির সামনে অভিযান পরিচালনা করে মো. রিপন (৩৫) ও মনির হোসেন (৩৫) নামে দুই মাদককারবারিকে আটক করা হয়। আটককালে ১২০ ক্যান বিয়ার, ২৪ বোতল বিদেশি মদ, একটি প্রাইভেটকার ও দুটি মোবাইল ফোনসহ জব্দ করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটকদের দেওয়া তথ্যের বরাতে এএসপি নোমান বলেন, তারা একটি সংঘবদ্ধ মাদককারবারি চক্রের সক্রিয় সদস্য। তারা পেশায় প্রাইভেটকারচালক। দীর্ঘদিন ধরে এই মাদককারবারি ও পরিবহনের সঙ্গে জড়িত। মাদক সংগ্রহ করে রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় বিক্রেতাদের কাছে সরবরাহ করত।

উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য ও আটকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা।

টিটি/এমআরএম/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]