গুলি করে পালাচ্ছিল সন্ত্রাসী, দৌড়ে ধরে ফেললেন নারী সার্জেন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৫৭ এএম, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

অডিও শুনুন

নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দৌড়ে অস্ত্র, গুলি ও বোমাসহ কালা চাঁন ওরফে সবুজ (৩৫) নামে এক সন্ত্রাসীকে আটক করে প্রশংসায় ভাসছেন খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের নারী সার্জেন্ট রেকসনা।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় নগরীর সরকারি মহিলা কলেজের সামনে (বয়রা গার্লস কলেজ) সাইদুর রহমান শাওন নামে এক যুবককে লক্ষ্য করে মোটরসাইকেল থেকে গুলি ছোড়ে সন্ত্রাসীরা। এসময় সেখানে দুই কনস্টেবলসহ কর্তব্যরত পুলিশ সার্জেন্ট রেকসানা ছিলেন। এঘটনা ঘটার সঙ্গে সঙ্গ নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দৌড়ে গিয়ে সন্ত্রাসী সবুজকে জাপটে ধরেন তিনি। পরে তল্লাশি চালিয়ে সবুজের কাছ থেকে একটি অত্যাধুনিক বিদেশি রিভলবার, একটি পিস্তল ও ১১ রাউন্ড গুলি ও হাত বোমা উদ্ধার হয় । পরে খালিশপুর থানায় তাকে হস্তান্তর করা হয় এবং তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা হয়। এ ঘটনার পর থেকে ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসায় ভাসছেন তিনি।

সেই মুহূর্তের ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে সার্জেন্ট রেকসনা জাগো নিউজকে বলেন, আমার ওপর অর্পিত দায়িত্ব ও কর্তব্যবোধ থেকেই সন্ত্রাসীকে ধরেছি। দায়িত্ব পালনের সময় কখনই মনে হয় না আমি নারী। আমি বাংলাদেশ পুলিশের একজন গর্বিত সদস্য, এটা ভেবে সব সময় দায়িত্বের সঙ্গে কাজ করি।

মাগুরার সদরে মেয়ে রেকসনা। ছোট বেলা থেকেই স্বপ্ন ছিল ম্যাজিস্ট্রেট হওয়ার। কিন্তু ম্যাজিস্ট্রেট না হলেও বাংলাদেশ পুলিশের একজন সদস্য হতে পেরে তিনি গর্বিত। কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চ শিক্ষা লাভের পর ২০১৭ সালের ৮ নভেম্বর খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশে সার্জেন্ট পদে যোগদান করেন তিনি।

টিটি/এমএএইচ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]