৩ বিভাগে হতে পারে বৃষ্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:৫১ এএম, ২২ জানুয়ারি ২০২২
ফাইল ছবি

মেঘের আনাগোনা বেড়ে যাওয়ায় ফের বাড়তে শুরু করেছে রাতের তাপমাত্রা। একই সঙ্গে দেশের খুলনা, বরিশাল এবং ঢাকা- দেশের এই তিন বিভাগে হালকা বৃষ্টির পূ্র্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। আগামী কয়েকদিন দেশজুড়েই বৃষ্টির প্রবণতা থাকতে পারে বলেও মনে করছেন আবহাওয়াবিদরা।

আপাতত দেশের কোথাও শৈত্যপ্রবাহ বইছে না বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। যদিও শনিবার সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮ দশমিক ৩ ডিগ্রি রেকর্ড করা হয়েছে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়। শুক্রবারও তেঁতুলিয়ার তাপমাত্রা ছিল ১১ দশমিক ২ ডিগ্রি। শুক্রবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৯ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল নওগাঁর বদলগাছীতে।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) মাঘ মাসের ৮ তারিখ। এদিন সকাল থেকেই ঢাকার আকাশ মেঘলা। মেঘের আধিপত্যে বলতে গেলে রোদের দেখা নেই। শনিবার সকালে ঢাকায় সর্বনিম্ন তামাত্রা ১৪ ডিগ্রি থেকে বেড়ে হয়েছে ১৫ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়াবিদ মো. আব্দুল হামিদ মিয়া জানান, আজ (শনিবার) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় খুলনা, বরিশাল এবং ঢাকা বিভাগের দু-এক জায়গায় হালকা বা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সারাদেশে মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পেতে পারে জানিয়ে এ আবহাওয়াবিদ বলেন, আগামী তিনদিনে সারাদেশে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ হিমালয়ের পাদ-দেশীয় পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ বিহার ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

আবহাওয়া বিভাগ আরও জানিয়েছে, শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল কক্সবাজারে, ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আরএমএম/ইএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]