চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে ১৫ জলদস্যু আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:০৩ পিএম, ২২ জানুয়ারি ২০২২

চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৫ জলদস্যুকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। এ সময় তাদের কাছ থেকে দুটি বিদেশি পিস্তল, ছয়টি ওয়ান শুটার গান ও চারটি কার্তুজসহ বেশকিছু দেশীয় অস্ত্র জব্দ করা হয়।

আটকরা হলেন- নুরুল আফসার, নূরুল কাদের, হাসান, মামুন, নুরুল কবির, আব্দুল হামিদ, আবু বক্কর, ইউসুফ, গিয়াস উদ্দিন, সফিউল আলম, আব্দুল খালেক, রুবেল উদ্দিন, সাইফুল ইসলাম জিকু, সুলতান ও মনজুর আলম।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) এক সংবাদ সম্মেলনে চট্টগ্রাম র‌্যাবের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এম এ ইউসুফ জানান, ২০১৮ সালের ১ নভেম্বর সুন্দরবনকে ‘দস্যুমুক্ত সুন্দরবন’ ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর থেকে সুন্দরবন এলাকায় জেলেরা স্বস্তির সঙ্গে মাছ ধরছেন। এর মধ্যে কিছুদিন আগে থেকে হঠাৎ সমুদ্রে আগের মতো জলদস্যুদের প্রকোপ বেড়ে যায়।

সম্প্রতি পটুয়াখালীর পাথরঘাটা এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে সাত জলদস্যুকে আটক করে র‌্যাবের বরিশাল ইউনিট। একই অভিযানে তিন জলদস্যু র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ নিহত হয়। ওই সময় আটকরা র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, জলদস্যুরা এখন বঙ্গোপসাগরের তীরবর্তী চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের বাঁশখালী, কুতুবদিয়া, পেকুয়া ও চকরিয়ায় অবস্থান করছে। এরপর ওই এলাকায় গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ায় র‌্যাব।

চট্টগ্রাম র‌্যাব অধিনায়ক বলেন, গত ২১ জানুয়ারি চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে নুরুল আফসার, নূরুল কাদের, হাসান ও মামুনসহ চারজনকে আটক করে র‌্যাবের একটি চৌকস দল। এরপর তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে নুরুল কবির, আব্দুল হামিদ, আবু বক্কর, ইউসুফ, গিয়াস উদ্দিন, সফিউল আলম, আব্দুল খালেক, রুবেল উদ্দিন, সাইফুল ইসলাম জিকু, সুলতান ও মনজুর আলমসহ আরও ১১ জনকে আটক করা হয়।

আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আটকদের সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান চট্টগ্রাম র‌্যাবের শীর্ষ এ কর্মকর্তা।

মিজানুর রহমান/এমএএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]