গোপাল কৃষ্ণ হত্যা: ১৮ বছর পর গ্রেফতার সাজাপ্রাপ্ত আসামি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:০১ পিএম, ২৩ জানুয়ারি ২০২২
চট্টগ্রামের সুগন্ধা আবাসিক এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় মহিউদ্দিনকে

চট্টগ্রামের চাঞ্চল্যকর গোপাল কৃষ্ণ মুহুরি হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি মহিউদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) নগরের পাঁচলাইশ থানার সুগন্ধা আবাসিক এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার হয়। পুলিশের খাতায় তিনি দীর্ঘ ১৮ বছর ধরে পলাতক ছিলেন। মহিউদ্দিনের গ্রামের বাড়ি হাটহাজারীর মান্দাকিনি এলাকায়। তার বাবার নাম এলাহী বক্স।

র‍্যাব সূত্রে জানা গেছে, ২০০১ সালের ১ নভেম্বর নগরের কোতোয়ালী থানার জামালখান রোডে নাজিরহাট কলেজের অধ্যক্ষ গোপাল কৃষ্ণ মুহুরি খুন হন। নিজ বাসায় সংবাদপত্র পড়ার সময় গুলি করে তাকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় একটি হত্যা মামলা হয়। ২০০৩ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি গ্রেফতার মহিউদ্দিনসহ চারজনকে মৃত্যুদণ্ড এবং চারজনকে যাবজ্জীবন দণ্ড দেওয়া হয়। তবে মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত আসামিরা আপিল করলে উচ্চ আদালত তাদের যাবজ্জীবন সাজা প্রদান করে।

রায় ঘোষণার পর থেকে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতে পলাতক ছিলেন আসামি মহিউদ্দিন। গত বছরের ২৯ অক্টোবর তিনি দেশে আসেন। এরপর তার ওপর নজরদারি বাড়ায় র‍্যাব। একপর‍্যায়ে মহিউদ্দিন আবার বিদেশ যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। শনিবার তিনি করোনা টেস্ট দিয়ে পাঁচলাইশ থানার সুগন্ধা আবাসিক এলাকায় অবস্থান করেন। সেখানে অভিযান পরিচালনা করে র‍্যাব তাকে গ্রেফতার করে।

চট্টগ্রাম র‍্যাবের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এমএ ইউসুফ জাগো নিউজকে বলেন, দীর্ঘ ১৮ বছর ধরে পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন আলোচিত হত্যা মামলার আসামি মহিউদ্দিন।

মিজানুর রহমান/জেডএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]