করোনা: ৪৮ ঘণ্টা আগে নেগেটিভ হলেও বিমানবন্দরে এসে পজিটিভ!

মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল
মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০২:৩০ পিএম, ২৪ জানুয়ারি ২০২২
শাহজালাল বিমানবন্দরে ছয়টি আরটি-পিসিআর ল্যাবে করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে/ফাইল ছবি

রাজধানীর হযরত শাহজালাল ও চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সংযুক্ত আরব আমিরাতগামী (ইউএই) যাত্রীদের মধ্যে অনেকে ৪৮ ঘণ্টা আগের নমুনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হলেও যাত্রার ছয় ঘণ্টা আগে করা টেস্টে করোনা পজিটিভ হচ্ছেন। পজিটিভ হওয়ায় যাত্রা অনিশ্চিত হওয়ার পাশাপাশি তাদের হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে। এতে যাত্রীরা যেমন ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন, অন্যদিকে বিপুল সংখ্যক রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করা নিয়েও সমস্যা দেখা দিচ্ছে।

আগে প্রতিদিন গড়ে দুই-চারজন যাত্রীর পজিটিভ রেজাল্ট আসলেও সম্প্রতি বিপুলসংখ্যক যাত্রী পজিটিভ হচ্ছেন। একদিনে ১০০-১৫০ যাত্রীর করোনা পজিটিভ হওয়ার তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের একাধিক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা সূত্র এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, নতুন বছরের শুরু থেকে দেশে করোনার সংক্রমণ অব্যাহতভাবে বেড়ে যাওয়ায় হাসপাতালগুলোতে রোগীর চাপ বাড়ছে। এ অবস্থায় দুবাইগামী যাত্রীদের হাসপাতালে ভর্তির ক্ষেত্রেও সমস্যা দেখা দিচ্ছে। করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে এখন পর্যন্ত বিমানবন্দর থেকে পাঠানো পজিটিভ রোগীদের ফিরিয়ে দেওয়া না হলেও প্রতিদিন শতাধিক যাত্রী পজিটিভ হওয়ায় ভবিষ্যতে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা দুরূহ হয়ে পড়বে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

আমিরাত সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী, গত ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে দুবাইগামী সব যাত্রীকে ফ্লাইট ছাড়ার ছয় ঘণ্টা আগের আরটি-পিসিআর ল্যাবরেটরিতে নমুনা পরীক্ষা করিয়ে নেগেটিভ সনদ নিয়ে যাত্রা করতে হচ্ছে। যাত্রীদের সুবিধার্থে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনুমোদনপ্রাপ্ত বেসরকারি ছয়টি প্রতিষ্ঠান শাহজালালের অভ্যন্তরে এবং শাহ আমানত বিমানবন্দরে চারটি আরটি-পিসিআর ল্যাবরেটরিতে যাত্রীদের নমুনা পরীক্ষা করছে।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ২৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত শাহজালালে স্থাপিত আরটি-পিসিআর ল্যাবে মোট ২ লাখ ৬৯ হাজার ২০৯ জন যাত্রীর নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তাদের মধ্যে এক হাজার ১১৭ জনের করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। শনাক্তের হার শূন্য দশমিক ৪১ শতাংশ। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ৬৫৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১০৯ জন যাত্রীর করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৬ দশমিক ৫৮ শতাংশ।

একই সময়ে শাহ আমানত বিমানবন্দরে ৪ হাজার ৯০২ জন যাত্রীর নমুনা পরীক্ষায় ২২৪ জন করোনা পজিটিভ হয়। শনাক্তের হার ৪ দশমিক ৫৭ শতাংশ। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় ২৫১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩৩ জনের পজিটিভ রেজাল্ট আসে। শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ১৫ শতাংশ।

jagonews24

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বলেন, বর্তমানে করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ায় খুব সহজেই বিপুলসংখ্যক মানুষ শনাক্ত হচ্ছেন। বর্তমানে ঘরে ঘরে জ্বর, ঠান্ডা ও কাশি হচ্ছে। দুবাইগামী যাত্রীদের অনেকেই প্রবাসী শ্রমিক। তারা দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে বিমানবন্দরে আসেন। ৪৮ ঘণ্টা আগে নমুনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হলেও পরবর্তী সময়ে গণপরিবহনসহ বিভিন্ন যানবাহনের মাধ্যমে বিমানবন্দরে আসা এবং ভেতরে বেশ কয়েক ঘণ্টা অবস্থান করার সময়ে করোনায় আক্রান্ত হন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কর্মরত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ দুবাইগামী যাত্রীদের মধ্যে শতাধিক করোনা পজিটিভ হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ৪৮ ঘণ্টা আগে করোনা নেগেটিভ যার, তিনি যাত্রার ৬ ঘণ্টা আগে করোনা পজিটিভ হচ্ছেন। ২-৩ দিনের মধ্যে বিমানবন্দর থেকে রাজধানীর উত্তরার বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে তিনি একদিনে ১১৩ জন রোগী পাঠান। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে জানান, নতুন করে সংক্রমণ বাড়ছে। এমতাবস্থায় প্রতিদিন এভাবে বিপুলসংখ্যক রোগী পাঠালে তারা ভর্তি করাতে পারবেন না।

এমইউ/এআরএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]