বাংলাদেশ ব্যাংকের ৪ কর্মকর্তাকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৫৩ পিএম, ২৪ জানুয়ারি ২০২২
ফাইল ছবি

প্রশান্ত কুমার হালদার (পি কে হালদার) ও তার সহযোগীদের ঋণ জালিয়াতি, আত্মসাৎ ও পাচারের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতে বাংলাদেশ ব্যাংকের চার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সংস্থাটির উপ-পরিচালক ও তদন্ত কর্মকর্তা গুলশান আনোয়ারের নেতৃত্বে একটি টিম তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছেন। দুদকের জনসংযোগ দপ্তর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

চার কর্মকর্তা হলেন- বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন বিভাগের যুগ্ম-পরিচালক মোহাম্মদ ফেরদৌস কবির, এবিএম মোবারক হোসেন, উপ-পরিচালক মো. হামিদুল আলম ও সহকারী পরিচালক মো. কাদের আলী।

গত ১৯ জানুয়ারি দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে পৃথক নোটিশে তাদের তলব করা হয়েছিল। জিজ্ঞাসাবাদ চলবে বিকেল পর্যন্ত।

গত বছরের নভেম্বরে ২৩০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে পি কে হালদারসহ ২৯ জনের বিরুদ্ধে আলাদাভাবে পাঁচটি মামলা করা হয়। এছাড়া ৮৮ কোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় আরও দুটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানানো হয়।

পাঁচটি মামলার মধ্যে কাগুজে প্রতিষ্ঠান জি অ্যান্ড জি এন্টারপ্রাইজ ও তামিম অ্যান্ড তালহা ব্রাদার্স লিমিটেডের নামে পৃথক ৩০ কোটি করে মোট ৬০ কোটি টাকার ঋণ নিয়ে আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে দুদকের উপ-পরিচালক মো. গুলশান আনোয়ার প্রধান বাদী হয়ে আলাদা দুটি মামলা দায়ের করেন।

গ্রিনলাইন ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের নামে ৬০ কোটি টাকা ঋণের নামে উত্তোলন করে আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক আফনান জান্নাত কেয়া বাদী হয়ে একটি মামলা করেন। এমটিবি মেরিন লিমিটেডের নামে ৬০ কোটি টাকার ঋণ নিয়ে এবং পি অ্যান্ড এল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের নামে ৫০ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক মো. ফেরদৌস রহমান বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা করেন।

পিকে হালদার ও তার সহযোগীদের কাগুজে প্রতিষ্ঠানের নামে ঋণ জালিয়াতির বিষয়ে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করতে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

এসএম/এআরএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]