৯ জেব্রার মৃত্যুর ঘটনায় হবে তদন্ত কমিটি

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:২২ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০২২

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে নয় জেব্রার মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন।

তিনি বলেন, তদন্তের মাধ্যমে এসব জেব্রার মৃত্যুর সঠিক কারণ এবং কারও দায়িত্বে অবহেলা ছিল কিনা তা খুঁজে বের করা হবে। বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ এ সরকার দায়ীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের ‘২০২১-২২ অর্থবছরের এডিপিভুক্ত প্রকল্পসমূহের ওপর ডিসেম্বর ২০২১ পর্যন্ত বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা’ সভায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন।

পরিবেশমন্ত্রী বলেন, এত কম সময়ের ব্যবধানে নয়টি জেব্রার মৃত্যু অত্যন্ত দুঃখজনক। ইতোমধ্যেই এর কারণ জানতে মৃতদেহের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিভিন্ন পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় নমুনা পরীক্ষা চলমান আছে। প্রাথমিক কিছু তথ্য জানা গেছে। বিশেষজ্ঞরা ফলাফল বিশ্লেষণ করছেন। যথাযথ কারণ নির্ণয়ে আরও সময়ের প্রয়োজন। প্রয়োজন হলে নমুনা বিদেশে পাঠানো হতে পারে।

এ সময় মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার, সচিব মো. মোস্তফা কামাল, অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) ইকবাল আব্দুল্লাহ হারুন, অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) সঞ্জয় কুমার ভৌমিক, পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আশরাফ উদ্দিন এবং বন অধিদপ্তরের প্রধান বন সংরক্ষক মো. আমীর হোসাইন চৌধুরী, প্রকল্প পরিচালকসহ মন্ত্রণালয় ও অধীন দপ্তর/সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ভার্চ্যুয়ালি সংযুক্ত ছিলেন।

এদিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে নয় জেব্রার মৃত্যুর ঘটনায় বৈঠক করেছেন বিশেষজ্ঞ দল। তারা জানিয়েছেন, জেব্রাগুলোর চারটি মারামারি করে ও পাঁচটি ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণে মারা যায়। মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) বিকেলে পার্কের ঐরাবতী বিশ্রামাগারে প্রাণীবিশেষজ্ঞ ও গবেষক দলের বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়।

জানা যায়, গত ২ জানুয়ারি থেকে ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত এ পার্কে নয়টি জেব্রার মৃত্যু হয়। নেতিবাচক পরিস্থিতির কথা ভেবে পার্ক কর্তৃপক্ষ তা জনসম্মুখে প্রকাশ করেনি। নয়টির জেব্রার মৃত্যুর পর এখন পার্কে জেব্রার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০টিতে।

এমইউ/বিএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]