ঈদযাত্রায় বাসে অনিয়ম: ৭ মামলা, জরিমানা ২৪ হাজার টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:১৪ পিএম, ৩০ এপ্রিল ২০২২
গাবতলী বাস টার্মিনাল/ফাইল ছবি

ঈদযাত্রাকে কেন্দ্র করে বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। এসব অভিযোগের ভিত্তিতে জরিমানা, মামলাও করছে প্রশাসন। তারপরও কোনো কোনো বাস অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করে যাচ্ছে। এর মধ্যে আবার কোনো বাসের রুট পারমিট ও ফিটনেস নেই। ফলে এসব পরিবহনের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়াসহ মোট ২৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

শনিবার (৩০ এপ্রিল) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনালে অভিযান চালায় বিআরটিএ, পুলিশ বিভাগ, সিটি করপোরেশন, পরিবহন মালিক ও শ্রমিক ইউনিয়নের সমন্বয়ে একটি ভিজিলেন্স টিম।

এসময় অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার জন্য সেলফি পরিবহনের দুই বাস এবং পদ্মা ও শুভযাত্রা নামের আরও দুটি বাসকে পৃথক পৃথক মামলা দেওয়া হয়। এছাড়া এসব বাস থেকে আদায় করা হয় ১৫ হাজার টাকা জরিমানা।

অপরদিকে আদেশ অমান্য করায় একটি পরিবহনকে দুই হাজার টাকা, আর রুট পারমিট না থাকায় আরেকটি পরিবহনকে দুই হাজার ও ফিটনেস না থাকায় অন্য একটি পরিবহনকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

টিমের সমন্বয়ক ও বিআরটিএ’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফখরুল ইসলাম জাগো নিউজকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে এর আগেও সেলফি পরিবহনের অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ ওঠে। এ অভিযোগে গত দুইদিন ট্রাফিক পুলিশ, ভোক্তা অধিকার ও ভিজিলেন্স টিম বাসটিকে জরিমানা করে। তারপরও
এই পরিবহনের অতিরিক্ত ভাড়া আদায় থামেনি।

এর আগে গত শুক্রবার এই পরিবহনের একটি বাসকে ৫০০ টাকা জরিমানা করেছিলো ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, তার আগের দিন জরিমানা করে ট্রাফিক পুলিশ। সবশেষ শনিবার সেলফি পরিবহনের দুটি বাসকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের দায়ে মামলা ও জরিমানা করে ভিজিলেন্স টিম।

অভিযোগ আছে, গাবতলী থেকে আরিচা ঘাট পর্যন্ত ১২০ টাকা ভাড়া নির্ধারিত রয়েছে। সেখানে এই পরিবহনে ভাড়া নেওয়া হচ্ছে ২৮০-৩০০ টাকা করে।

আসাদ নামের এক যাত্রী বলেন, অন্যান্য সময় ভাড়া ১০০-১২০ টাকা হলেও এখন এই গাড়িতে ৩০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। সবার সামনেই এই অনিয়ম চললেও কেউ কিছু বলছে না।

এ বিষয়ে শুক্রবার সেলফি পরিবহনের চেয়ারম্যান ও ঢাকা জেলা যানবাহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. আব্বাস উদ্দীন বলেন, সেলফি পরিবহনে যে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা সেটা আমার অগোচরে হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রত্যেকটি গাড়ির স্টাফকে নির্দেশ দিয়েছি তারা যেন সরকার নির্ধারিত ভাড়ার থেকে এক টাকাও বেশি আদায় না করে। আশা করি এখন থেকে সব ঠিকভাবে চলবে।

বিআরটিএ’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফখরুল ইসলাম বলেন, যাত্রীরা যাতে নিরাপদে ও ভোগান্তি ছাড়া বাড়ি ফিরতে পারে সেই লক্ষ্যে কাজ করছি। কোনো অভিযোগ পেলেই যাত্রীকে সঙ্গে নিয়ে সেটা পর্যালোচনা করা হচ্ছে। জরিমানা করছি, করছি সতর্ক। পরিবহনগুলো বলছে ভবিষ্যতে তারা আর এই ভুল করবে না।

এসএম/জেডএইচ/

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।